প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কোটা ব্যবস্থা ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী

ড. অজয় রায়: কোটা ব্যবস্থা সম্পূর্ণ বাতিলের পক্ষে নই আমি, বেশির ভাগই রাখা উচিত। কারণ এখানে এমন অনেক জনগোষ্ঠী রয়েছে যাদের জীবনমান উন্নত নয়। তারা পিছিয়ে পড়া সমাজের অংশ। পিছিয়ে পড়াদের সামনে নিয়ে আসতে হলে তাদের পাশে থাকতে হবে। রাষ্ট্রেরও দায়িত্ব রয়েছে পিছিয়ে পড়াদের সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসার। তাই বলছি, আদিবাসী ও পিছিয়ে পড়া মানুষদের জন্য কোটা ব্যবস্থা থাকা দরকার। মুক্তিযোদ্ধা কোটার বিষয়টিও রয়েছে। সবকিছু বিবেচনায় ভালো একটি সিদ্ধান্তই সরকারের কাছে জাতি আশা করে।

আমাদের জেলাওয়ারী কোটা রয়েছে। দেশের পশ্চাৎপদ, উত্তরবঙ্গ, সিলেট, বরিশাল জেলা পর্যন্ত যে অঞ্চলগুলো রয়েছে সেখানকার সব মানুষ শিক্ষিত ও সুবিধাভোগী নয়। তাদের অগ্রগতি ও উন্নয়নের জন্য অবশ্যই কোটা সংরক্ষণ দরকার। এর বাইরেও দিনাজপুর, রংপুর অঞ্চলের মানুষের সঙ্গে যদি ঢাকা, কুমিল্লা জেলার মানুষের তুলনা করা হয় নিঃসন্দেহে রংপুর ও দিনাজপুর এলাকার মানুষেরা পিছিয়ে। তাদের এগিয়ে আসার স্বার্থে আরেকটু সুবিধার প্রয়োজন আছে। পশ্চাৎপদ নৃগোষ্ঠী চাকমা, সাঁওতাল জনগোষ্ঠী রয়েছে তাদের জন্যও কোটা থাকা দরকার।

কোটা ব্যবস্থার সুষ্ঠু সুরাহা কীভাবে করা যায় তার জন্য সরকার কমিটি করে দিয়েছে। আমাদের এখন অপেক্ষা করতে হবে। দেখতে হবে সরকারকে তারা কী ধরনের পরামর্শ দেন। যাদের এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তারা নিশ্চয় অনেক যোগ্য। সরকার ও কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের জন্য ভালো কোনো পরামর্শ তাদের দিবেন বলে আমরা প্রত্যাশা করছি।
পরিচিতি: শিক্ষাবিদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত