প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গুজব কাজে লাগিয়ে নানা রকমের স্বার্থ উদ্ধার হয় : জোনায়েদ সাকি (ভিডিও)

হ্যাপী আক্তার : যদি অবাধ তথ্য প্রবাহ থাকে, মিডিয়া অবাধভাকে কাজ করতে পারে এবং স্বাধীনভাবে তথ্যগুলো সংগ্রহ করতে পারে মিডিয়া। তখন গুজব আর কাজ করতে পারে না। কিন্তু মানুষের মধ্যে একটি ধারনা তৈরি হয়েছে মিডিয়া বোধহয় স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না, তখনই গুজবের ডাল পালা বাড়তে থাকে। এই গুজব কাজে লাগিয়ে নানান রকমের স্বার্থ উদ্ধার হয়।

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আই এর ‘তৃতীয় মাত্রা’ অনুষ্ঠানে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় জোনায়েদ সাকি বলেন, আইন মানেই গুরুত্বপূর্ণ, আইন মানেই একটি গণতান্ত্রিক আইন। আমরা আইনের শাসন চাই কিন্তু সেটা খুবই গণবিরোধী আইনের শাসন চলছে তাহলে তো কোনো লাভ হলো না। আইন করা উচিত গণতান্ত্রিক, যে আইন মানুষকে ক্ষমতায়িত করে।

এসময় তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পক্ষ থেকে কোনো গুজব তৈরি হয়নি। তারা মার খেয়েছে এবং তারা তাদের জায়গাটি তৈরি করেছে। নতুন প্রজন্মের যে ভাবনা সেটাকে কাজে লাগিয়ে দেশকে কাজে লাগাতে হবে। সেই পথে না হেটে ব্রেন্ডিং করলে এবং তৃতীয় পক্ষ খোঁজে নিজেদের দলকে আন্দোলনকে ক্রেডিট দিলে এতে রাজনৈতিকভাবে কোনো লাভ হবে না। বরং বাংলাদেশে বিদ্যমান সংঘাতের জায়গাটি বেড়ে যাবে।

তিনি আরো বলেন, যদি দোষীদের দ্রুত শাস্তির ব্যবস্থা করতেন এবং মন্ত্রী যদি পদত্যাগ করতেন তাহলে এই পরিস্থিতি হতো না। যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, শিক্ষার্থীদের যে বিরাট অর্জন সেটাকে কাজে লাগিয়ে সড়কের যে নৈরাজ্য সেটা বন্ধ করতে হবে।

শহীদুল আলমের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আন্তর্জাতি প্রখ্যাত আলোকচিত্রী শহীদুল আলম তিনি আমাদের দেশের সম্পদ। তাকে যত দ্রুত সম্ভব মুক্তি দেওয়া দরকার। এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মুক্তি দেওয়া দরাকার। তার সাথে সরকারি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরা যদি তারা সংযমের পরিচয় দেন তাহলে এই আন্দোলন তার নিজস্ব জায়গায় গিয়ে সমাপ্ত হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ