প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লোকসান কাটিয়ে ওঠতে পারছে না বিসিআইসি

সোহেল রহমান: লোকসান কাটিয়ে ওঠতে পারছে না ‘বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন’ (বিসিআইসি)। সদ্য সমাপ্ত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে সংস্থাটির লোকসান হিসাব করা হয়েছে ৮৩৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকা, যা এর আগের অর্থবছরের তুলনায় প্রায় দ্বি-গুণ। গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে সংস্থাটি ৪৫৫ কোটি ৬৫ লাখ টাকা লোকসান দিয়েছিল।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে বিসিআইসি’র আওতাধীন চালু শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১৩টি। চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর নীট লোকসান প্রাক্কলন করা হয়েছে প্রায় ৭৮১ কোটি টাকা। এর মধ্যে পরিচালনাগত লোকসানের পরিমাণ ৬৬৫ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। তবে চলতি অর্থবছরে সার্বিকভাবে লোকসান ৫৭ কোটি টাকা কমবে বলে সংস্থার নিজস্ব বাজেট প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে। লোকসান কমাতে চলতি অর্থবছর শেষে ১৩টি শিল্প-কারখানার মোট জনবল ২৮৩ জন কমিয়ে আনার প্রস্তাব করেছে সংস্থাটি।

অন্যদিকে বিসিআইসি’র প্রধান কার্যালয়ের এক পৃথক বাজেট প্রস্তাবনায় সংস্থার প্রধান কার্যালয়ের আয়-ব্যয় সমান দেখানো হয়েছে। এর পরিমাণ ৩ হাজার ৮৭৭ কোটি টাকা।

চলতি পঞ্জিকা বছরের গত জানুয়ারি পর্যন্ত হিসাব অনুযায়ী, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে বিসিআইসি’র মোট বকেয়া ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৮৭ কোটি ১৮ লাখ টাকা। এটা গত বছরের তুলনায় ৯১৫ কোটি টাকা বেশি।

বাজেট উপাত্ত পর্যালোচনায় দেখা যায়, বিসিআইসি কখনো টানা তিন বছর লোকসান দিচ্ছে, কখনো আবার তিন বছর টানা মুনাফা অর্জন করছে। সর্বশেষ তিন বছর ধরে সংস্থাটি লোকসান দিয়ে যাচ্ছে। তবে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের পর সংস্থার লোকসান ব্যাপক বেঢ়েছে। আলোচ্য বছরে সংস্থার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৭৪ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। যা এর পরের অর্থবছর (২০১৬-১৭) বেড়ে দাঁড়ায় ৪৫৫ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। সংস্থাটি সর্বশেষ গত ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ১০৩ কোটি টাকা মুনাফা অর্জন করেছিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ