প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চন্ডিপাশা ইউনিয়ন মহিলা আ. লীগের সভাপতি খালেদা, সাধারণ সম্পাদক রোজিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ পাকুন্দিয়া উপজেলার চন্ডিপাশা ইউনিয়ন শাখার ত্রিবার্ষিক সম্মেলন-২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সর্বসম্মতভাবে খালেদা আক্তারকে সভাপতি ও রোজিনা আক্তারকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি আগামী তিন বছর দায়িত্ব পালন করবেন।

পাকুন্দিয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস পান্নার সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের হিউম্যান রাইটস লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর অ্যাডভোকট মোখলেছুর রহমান বাদল, কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আহমেদ উল্লাহ, পাকুন্দিয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খালেদা আক্তার, সহ সভাপতি শামিমা আক্তার, সহ সাধারণ সম্পাদক রোখসানা জান্নাত রিয়া, কোষাধক্ষ রিক্তা আক্তার ও স্থানীয় দুই শতাধিক নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি মোখলেছুর রহমান বাদল বলেন, নারীরা যে সক্রীয় হয়েছে তা এই অনুষ্ঠানের উপস্থিতিই প্রমাণ করেছে। প্রচন্ড বৃষ্টির মাঝেও দুই শতাধিক নারীর উপস্থিতি সত্যিই তৃণমূল নারী রাজনীতিকে এগিয়ে নিতে প্রেরণা জোগাবে। এই দেশের রাজনীতিতে তাদের ভূমিকা থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, আপনারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করবেন। কারও রক্তচক্ষুকে ভয় পাবেন না। নারীরা মায়ের জাতি। এ দেশের প্রধানমন্ত্রী নারী, বিরোধী দলের নেত্রী নারী। আপনারা সবাই এক যোগ হয়ে কাজ করুন। বঙ্গবন্ধুর কণ্যা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করুন এবং আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয়ে কাজ করুন।

বিশের অতিথি কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আহমেদ উল্লাহ বলেন, নারীরা ঘর থেকে বের হয়েছে। তারা শিক্ষিতি হচ্ছে। বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হচ্ছে। আজ এখানে এসে দেখলাম তৃণমূলের নারীরাও কতোটা এগিয়ে আছে। এতো বৃষ্টির মধ্যেও ইউনিয়ন পর্যায়ে দুই শতাধিক নারীর উপস্থিতি আমাকে মুগ্ধ করেছে। আমি আশা করবো আপনারা নৌকা পক্ষে নিরলসভাবে কাজ করবেন। আপনারা স্থানীয় নেতৃবৃন্দেরও সহযোগিতা নেবেন। আমরাও বিভিন্ন সময়ে সহযোগিতা করে যাবো।

সভাপতির বক্তব্যে জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আপনারা শক্তিশালী করুন। আমারা নৌকার মাঝি হয়ে আবারও জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করবো ইন্শাল্লাহ। আমরা কোন ষড়যন্ত্রকে ভয় করি না। নারীরা মাথা উঁচু করে, মেরুদন্ড সোজা করে বাঁচবে। আজকের এই সম্মেলন সফলভাবে আয়োজনের ক্ষেত্রও অনেকে বাধা হয়েছে দাঁড়িয়েছিলো। বিশেষ করে স্থানীয় চেয়ারম্যান চরমভাবে অসহযোগিতা করেছে। আমি জানিনা তিনি কেমন আওয়ামী লীগ করেন? যদি আওয়ামী লীগ করতেন, নৌকার মাঝি হতেন, তবে নিশ্চয় এই তৃণমূল মহিলাদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতেন। এমন সময় উপস্থিততে সবাই জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত করে তুলে সভাস্থল।

নব নির্বাচিত চন্ডিপাশা ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খালেদা আক্তার স্থানীয় সকল নেতাকর্মীদের সহাযোগিতা কামনা করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত