প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাকিস্তান সফর নিরাপত্তা সংক্রান্ত কারনে রাজি নয় নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক: আসছে অক্টোবরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিন টেস্ট, তিন ওয়ানডে ও সমানসংখ্যক টি-টুয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ খেলবে নিউজিল্যান্ড। সিরিজ হবে পাকিস্তানের দ্বিতীয় হোম ভেন্যু সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড আশা করেছিল ওই সিরিজের টি-টুয়েন্টি ম্যাচগুলো পাকিস্তানে হোক। ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটারদের গাড়িতে সন্ত্রাসী হামলার ৯ বছর ধীরে ধীরে সেখানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে।

কিন্তু পাকিস্তান সফরে যাওয়ার বিষয়টি না করে দিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের একটি স্থানীয় পত্রিকা এই খবর জানিয়েছে। নিউজিল্যান্ড রাজি হলে ১৫ বছরের মধ্যে এটি হত পাকিস্তানে তাদের প্রথম সফর।

নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় পত্রিকা নিউজহাবকে দেশটি ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান গ্রেগ বার্কক্লে বলেছেন, ‘দিনশেষে অ্যাডভাইজরি এবং নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রতিবেদনগুলোকে অনুসরণ করে আমরা এই সিদ্ধান্তে এসেছি।’

‘এতে কোনো সন্দেহ নেই যে তারা (পিসিবি) হতাশ হবে। নিউজিল্যান্ডের মত একটি দল পাকিস্তান সফর করলে সেদেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাটা আরো সহজ হত। সুতরাং তারা হতাশ হবেই। কিন্তু তাদের ওখানে অনেক ভালো মানুষ রয়েছেন, পাকিস্তানের সঙ্গে আমাদের সম্পর্কও ভালো। আমি মনে করি, সবকিছু বিবেচনা করে আমাদের সিদ্ধান্ত তারা মেনে নেবেন,’-যোগ করেন বার্কক্লে।

নিউজিল্যান্ড সর্বশেষ ২০০৩ সালে পাকিস্তান সফর করে। ওই সফরের শেষে কিউই টিম হোটেলের বাইরে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছিল।

বার্কক্লের সামনে প্রশ্ন ছিল, নিউজিল্যান্ড খেলোয়াড়রা যদি পাকিস্তান সফরে প্রস্তুত থাকে তাহলে বোর্ড কী করবে? উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, সম্ভবত বিভিন্ন কারণে কঠিন হবে। তারপরও ভাগ্যক্রমে আমাদের আলোচনায় এই বিষয়টি সামনে আসেনি।’

২০০৯ সালের পর চলতি বছরের এপ্রিলে বড় দল হিসেবে প্রথম পাকিস্তান সফর করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। যে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর হামলা হয়েছিল, সেই শ্রীলঙ্কাও ২০১৭ সালে লাহোরে একটি টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলে। পাকিস্তানকে নিরাপদ প্রমাণে পিএসএলের দুটি ফাইনালও অনুষ্ঠিত হয় লাহোরে। চ্যানেলআই অনলাইন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ