প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সবার ভোট একাই দিলেন প্রার্থী কালাম মোল্লা!

ডেস্ক রিপোর্ট : আখলিমা বেগম। বরিশাল নগরীর ৩০নং ওয়ার্ডের গড়িয়ারপার এলাকার বাসিন্দা। ভোট দিতে এসেছিলেন ওই ওয়ার্ডের কলাডেমা কেন্দ্রে। এসে দেখছেন তার ভোট দেয়া হয়ে গেছে বহু আগেই। আক্ষেপের সুরে বলছেন বুঝছিলাম ভোট দিতে পারবো না। তবুও এসেছিলাম ভোট দিতে কিন্তু এসে দেখি ভোট দেয়া হয়ে গেছে। তিনি বলেন, ৩০নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আবুল কালাম মোল্লা তার লোকজনদের নিয়ে এখানে নিজেই ভোট দিচ্ছেন। এই ওয়ার্ডে অন্য কোনো ভোটার নেই। ভোটার শুধু কালাম মোল্লা। এখানে সব ভোটারদের পক্ষ হয়ে কালাম মোল্লা ভোট দিচ্ছেন। তার লোকজন আমাদের কেন্দ্র থেকে তাড়িয়ে দিয়েছেন। এই কেন্দ্রের আরেক ভোটার মোসলেম মাঝি বলেন, আমাদের আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে ভোট দিতে এসেছি কিন্তু সেই ভোটই দিতে পারিনি। সন্ত্রাসী বাহিনী এই ওয়ার্ডের বিভিন্ন কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে ছিল। যে কারণে ভয়তে আমরা কোনো প্রতিবাদ করিনি। আর প্রতিবাদ করেই বা লাভ কি সব কিছু তো পুলিশের সামনেই হয়েছে।

মুন্নী ইসলাম নামে এক বাসিন্দা জানান, এই এলাকায় আগে থেকেই অনেক ঝামেলা হয়েছে। প্রথমে ভোট দেবনা বলে ভেবেছিলাম। কিন্তু আশা নিয়ে মেয়র প্রার্থীর ভোটটা দিতে গেলেও কাউন্সিলর প্রার্থী কালাম মোল্লা তা দিতে দেয়নি। ওই ওয়ার্ডে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী খায়রুল হাসান মামুন জানান, ভোট শুরু হওয়ার পর থেকেই অনেক ঝামেলা করেছে কালাম মোল্লা। আমার লোকজনদের মারধর করেছে এবং এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে। এর প্রতিবাদ করেও লাভ হয়নি। পেশি শক্তির জোড় খাটিয়ে এখানে ব্যালট বাক্স ভরা হয়েছে। এই অভিযোগের বিষয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা কালাম মোল্লার কোনো বক্তব্য সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। তবে বরিশাল সিটি নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার মো. মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন, ভোট সুষ্ঠু ভাবেই সম্পন্ন হয়েছে। আর এ ধরনের কোনো অভিযোগ আমরা পাইনি।-যুগান্তর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ