প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুই শিক্ষার্থী নিহত
দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান এনায়েত উল্যাহ

আনিসুর রহমান তপন : রোববার রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসের চাপায় পিষ্ট দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ায় ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ। সোমবার এই প্রতিবেদকের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে এমন দাবি করেন তিনি।

মালিক সমিতির মহাসচিব বলেন, এটি অত্যান্ত নেক্কারজনক ঘটনা। এই ঘটনা ভাষায় বর্ণনা করা যাবে না। এটি অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। তিনি বলেন, যারাই এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি আমরা চাই। আমরা চাই যারা বেপরোয়াভাবে এই ভাবে গাড়ি চালায়, যাদের বেপরোয়া ড্রাইভের কারণে মানুষের জীবন হানি ঘটছে, এমন বেপরোয়া চালকদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

এনায়েত উল্যাহ আরো বলেন, এর পাশাপাশি যানবাহনের মালিকরা যদি লাইসেন্স ছাড়া কোনো চালককে নিয়োগ দিয়ে থকেন তবে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনতে হবে। শাস্তি দিতে হবে। মালিককে যাচাই করতে হবে চালকের গাড়ি চালানোর অনুমতি বা লাইসেন্স আছে কিনা? যদি কোনো চালক তার লাইসেন্স নিয়োগ পাওয়ার জন্য কোনো মালিককে দেখিয়ে থাকে তবে সেটা একজন মালিক হিসেবে তাকে নিশ্চিত হতে হবে যে, এটা আসল নাকি নকল লাইসেন্স।

যে ধরণের শ্রমিকরা বেপরোয়া গাড়ি চালায় বা এ ধরণের কাজ করছে বা মানুষের জীবন নিয়ে নিচ্ছে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে।

রাস্তায় আন্দোলনরদের শিক্ষার্থীদের বিষয়ে মহাসচিব বলেন, তারা যদি অভিযুক্ত গাড়ি চালকের শাস্তির দাবি করছে। এ আন্দোলনের সঙ্গে আমি শতভাগ একমত প্রকাশ করছি।

দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় চলমান আন্দোলনে নৌমন্ত্রী ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাজাহান খানের পদত্যাগ দাবি করছেন। এই বিষয়ে জানতে চাইলে এনায়েত উল্যাহ বলেন, এই বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে পারবো না, কারণ এটি সরকারের বিষয়।

উল্লেখ্য, রোববার দুপুরে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। নিহত দুই শিক্ষার্থীর একজন শহীদ রমিজউদ্দীন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম ওরফে রাজীব (১৭) ও অন্যজন একই কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম ওরফে মিম (১৬)। সম্পাদনা: তরিকুল ইসলাম সুমন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত