প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাঁচ কার্যদিবস ধরে শেয়ারবাজারে দরপতন

মাসুদ মিয়া : দেশের শেয়ারবাজার টানা দরপতনের বৃত্তেই আটকে পড়েছে। সোমবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের নিন্মমুখী প্রবণতার মধ্যে দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। এই নিয়ে টানা পাঁচ কার্যদিবস শেয়ারবাজারে দরপতন হলো। মূল্যসূচকের পাশাপাশি গতকাল লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৯২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২০০টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টির দাম।
বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম কমায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১৭ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ২৬২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দু’টি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৭ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৮৭১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৪০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

মূল্যসূচক ও অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমলেও ডিএসইতে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৬১৪ কোটি ৫৬ লাখ টাকার শেয়ার। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫৭৭ কোটি ৩৪ লাখ টাকার শেয়ার। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৩৭ কোটি ২২ লাখ টাকা।

এদিন টাকার অংকে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে সায়হাম টেক্সটাইলের শেয়ার। কোম্পানিটির মোট ৩২ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকার। আর ১৫ কোটি ৩১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পেনিনসুলা চিটাগাং।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ৩৪ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৮০৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৫৩ কোটি ২৪ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট। লেনদেন হওয়া ২৪৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ৬৩টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ১৪৭টির দাম। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত