প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

স্বাধীনতা দিবসের আগেই শপথ নেবেন ইমরান

ডেস্ক রিপোর্ট: আগামী ১৪ আগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের আগেই দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন ইমরান খান। ইমরানের বাসার বাইরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে দলের এমন চিন্তাভাবনার কথা জানান পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-এর প্রভাবশালী নেতা নাঈম-উল-হক।

সরকার গঠনে প্রয়োজনীয় আসন নিশ্চিত করতে অন্য দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলেও জানান এই রাজনীতিক।

শনিবার (২৮ জুলাই) পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশনের দেওয়া চূড়ান্ত ফল অনুযায়ী, সরকার গঠনের জন্য আরও অন্তত ২২টি আসন প্রয়োজন পিটিআই-এর। সেক্ষেত্রে ইমরানকে অন্য দল কিংবা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সঙ্গে জোট সরকার গঠন হবে। এ ব্যাপারে পিটিআই-এর পক্ষ থেকে সরকার গঠনের জন্য এমকিউএম ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশনের দেওয়া চূড়ান্ত ফল অনুযায়ী, নির্বাচনে পিটিআই পেয়েছে ১১৫টি আসন। পিএমএল-এন ৬৪টি ও পিপিপি ৪৩টি আসনে জয় পেয়েছে। পাকিস্তানে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করতে চাইলে যে কোনও দলকে ১৩৭টি আসন পেতে হয়। সে সংখ্যা নিশ্চিতে ইমরানের দলের দরকার আরও ২২টি আসন।

শনিবার দিনভর পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমগুলোতে নতুন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদগুলো কাদের দেওয়া হতে পারে তাদের সম্ভাব্য তালিকা নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল। পিটিআই-এর এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে ডন জানায়, বানিগালায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনা হয়নি। সরকার গঠনের হিসাব মেটাতেই দল এখন ব্যস্ত। ডনের পক্ষ থেকে পিটিআই-এর নেতা শাফকাত মেহমুদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি দাবি করেন, বানিগালায় কোনও আনুষ্ঠানিক বৈঠক হয়নি। তার দাবি, সরকার গঠনের পর দলকে কী ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে তা নিয়েই আলোচনা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রিত্ব নিয়ে কথা হয়নি। শাফকাত মেহমুদকে দলের পক্ষ থেকে জাতীয় পরিষদের স্পিকার হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে বলেও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো। সে খবরও নাকচ করে দিয়েছেন শাফকাত। বাংলা ট্রিবিউন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ