প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উন্নত নারায়ণগঞ্জ স্বপ্ন দেখি
আমি কোন সন্ত্রাসী চাই না, সেবা করতে চাই: শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : টাকা কারো বাপের না- এটা জনগণের টাকা। মানুষের হাত-পা ধরে টাকা আনতে হয়। অন্যান্য মন্ত্রী পেয়েছে ২৫ কোটি করে আমি আনলাম ৮৫ কোটি টাকা অনেক কাজ করে। ৪১টি রাস্তার কাজ। তারপরও বলে এখানে রাস্তার অনুমোদন নাই নাম নাই বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

রবিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লার ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ে নবনির্মিত ভবন ও ভাষা সৈনিক নাগিনা জোহা স্মৃতি পাঠাগার ও বিজ্ঞানাগারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, টাকা কারো বাপের না- নির্বাচন আবার করব কি করব না এটা পরের কথা। আগামীকাল বাঁচি কিনা ঠিক নাই। আমি মানুষের সেবা করে যেতে চাই। শুধু আপনাদের দোয়া চাই। আমি কোন সন্ত্রাসী চাই না, আমার কাছে কোন মাদক ব্যবসায়ীর ছাড় নাই। আমি এমন নারায়ণগঞ্জ চাই- যেখানে রাতে ভালো না লাগলে দুই বোন নির্ভয়ে সড়কে হাঁটতে পারবে।

ডিএনপি সমস্যা নিয়ে তিনি বলেন, আগামী বর্ষায় ডিএনডি এলাকার এখানে আর পানি জমবে না কথা দিলাম। আমি এ সভামঞ্চে বসে সেনাবাহিনীর সাথে কথা বলেছি। জিজ্ঞাসা করেছিলাম- আমি আমার জনগণকে কি বলব? আমি তো ঢাকা থেকে পার্লামেন্টে কথা বলে টাকা বরাদ্দ আনলাম।

সকলের দোয়ায় ৭১০২ কোটি টাকার কাজ করেছি। ঢাকা-নারায়াণগঞ্জ লিংক রোডে ১৪ কোটি টাকার বরাদ্দ দিয়েছি। কারণ রাস্তা নষ্ট হতেই পারে। তারপর ১৮ কোটি টাকার বরাদ্দ করলাম। সিটি করপোরেশনের ছোট্ট একটা ড্রেনের কাজ করতে ছয় মাস লাগে। এটার জন্য মানুষ কেন কষ্ট করবে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা এই সড়কের জন্য মানুষকে যানজটে বসে থাকতে কেন হবে।’

তিনি বলেন, সারাদেশের ১০টি বিদ্যালয় পাস হয়েছে যার মধ্যে আমি দুটি নারায়ণগঞ্জের জন্য নিয়ে এসেছি। তিন বিঘা জায়গায় ১০ তলা বিদ্যালয়, একটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নির্মাণ করব এ প্রক্রিয়া প্রায় চূড়ান্ত। আমার নারায়ণগঞ্জবাসীর যেন জেলার বাইরে কোথাও যেতে না হয়- সেই রকম উন্নত নারায়ণগঞ্জ আমি স্বপ্ন দেখি।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ছিদ্দিকুর রহমান ও সদস্য সাংবাদিক রোমান চৌধুরী সুমন প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ