প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তিন ম্যাচের একটিতেও ধৈর্যহারা হইনি,কঠোর পরিশ্রমের ফল পেয়েছি :তামিম

আবু সুফিয়ান শুভ: বাংলাদেশের টাইগাররা টেস্টে ব্যর্থতার পর ওয়ানডে খুবই ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন।দলগত ভাবে নিরলস কঠোর পরিশ্রম করলে ভাগ্য যে নিজের অনুকূলে চলে আসে তার প্রমান ওয়ানডে ক্রিকেটে ভক্তরা পেলো।বিশেষে করে তামিম ইকবাল অসাধারণ খেলেছেন। টেস্ট সিরিজের ফলাফল পক্ষে আসেনি, ব্যাট হাতেও ব্যর্থ ছিলেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডে সিরিজে এসে মিলেছে ব্যাটের রান, এসেছে দলের জয়। জিতেছেন সিরিজ সেরার পুরষ্কার। দুই ম্যাচে ছিলেন ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ও। সিরিজ শেষে তামিমের কণ্ঠে ঝরলো সন্তুষ্টির বাতাস। বলেছেন কঠোর পরিশ্রমের ফলই ছিলো এই সাফল্য।

দেরাদুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পরে ঈদের ছুটিতে আর বাড়ি যাননি তামিম। ছিলেন পরিবার-পরিজন থেকে একা মিরপুরের শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে। নিজের ঘাটতিগুলো মেটাতে অনুশীলন করেছন একাই। তারই ফলস্বরুপ ওয়ানডে সিরিজের তিন ম্যাচে ২ সেঞ্চুরি ও ১ ফিফটিতে করেছেন ২৮৭ রান।

তৃতীয় ম্যাচ শেষে নিজের ব্যাটিং নিয়ে কথা বলতে গিয়ে শুধু এই পরিশ্রমের কথাই জানালেন তামিম। তিনি বলেন, ‘নিজের ব্যাটিং নিয়ে কিছু বলার নেই। যখন আপনার দল জেতে তখন এর চেয়ে ভালো কিছু হতে পারে না। আমি বলতে পারি আমি তিন ম্যাচের একটিতেও ধৈর্যহারা হইনি। আমার কঠোর পরিশ্রমের ফল পেয়েছি। হয়তো টেস্ট সিরিজে সফল ছিলাম না। শুধু আমি নই ওয়ানডে সিরিজেও অনেকেই সফল হতে পারেনি। তবে প্রত্যেকেই কঠোর পরিশ্রম করেছি।’

সিরিজ শেষে তার মুখে শোনা গেল এই পরিশ্রমের ফল পাওয়ার প্রশান্তি। টেস্ট সিরিজে হতাশাময় ফলাফলের পর ওয়ানডেতে এই সিরিজ এই জয়টা অনেক বেশি সন্তুষ্টির বলে মনে করছেন তামিম।

‘খুব বেশি সন্তুষ্টির এই জয়। কারণ ২০১৫ সালের (২০১৬ সালের পর) পরে এই প্রথম আমরা কোন সিরিজ জিতলাম। অনেক আশা নিয়ে আমরা এখানে এসেছিলাম। কিন্তু টেস্ট সিরিজে কিছুই পক্ষে আসেনি। সেই সিরিজের পর আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিলো ওয়ানডে সিরিজটা ভালো খেলা।’

শেষ ম্যাচের এক পর্যায়ে ক্রিস গেইল দাঁড়িয়ে গেছিলেন, খেলছিলেন স্বভাবসুলভ আক্রমণাত্মক ইনিংস। তখনো দলের কেউ আশা ছাড়েনি বলে মন্তব্য করেন তামিম। সব দিক বিবেচনা করেই সিরিজ জয়ের আনন্দটা অনেক বেশি বলে মনে করছেন দেশসেরা এই ওপেনার।

‘আলহামদুলিল্লাহ্! আমরা প্রথম ওয়ানডেতে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছি। দ্বিতীয় ম্যাচটাও আমাদের জেতা উচিৎ ছিল, কিন্তু হয়নি। এই ম্যাচটাও ছিল অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আমার কাছে সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে দলের কেউ আশা ছাড়েনি। সবাই বিশ্বাস রেখেছিল আমরা জিততে পারব। সবদিক বিবেচনা করে এই সিরিজ জয়টা আমাদের জন্য খুব বেশি আনন্দের।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ