প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অর্থের অভাবে যৌনকর্মে লিপ্ত হচ্ছে অভিবাসী শিশুরা: সেভ দ্য চিলড্রেন

লিহান লিমা: ইতালি সীমান্ত থেকে ফ্রান্সে প্রবেশ করতে যৌনকর্মে লিপ্ত হতে বাধ্য হচ্ছে অভিবাসী শিশুরা। সম্প্রতি সেভ দ্য চিলড্রেনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সীমান্ত পাড়ি দিতে চালককে যে অর্থ দিতে হয় (৫০ থেকে ১৫০ ইউরো) তা প্রদান করার সামর্থ্য না থাকায় বাধ্য হয়ে যৌনকর্মে লিপ্ত হচ্ছে শিশু-কিশোরীরা। এদের মধ্যে বেশিরভাগই সাব-সাহারা আফ্রিকার।

সংস্থাটি জানায়, সীমান্ত পার হওয়া ছাড়াও খাদ্য এবং সাময়িক আশ্রয়ের বিনিময়েও তার এই কাজ করছে। সেভ দ্য চিলড্রেনের ইতালি-ইউরোপ বিষয়ক প্রকল্পের প্রধান রাফায়েল মিলানো বলেন, ‘এরা সবাই অল্পবয়সী, নিরাপদ ভ্রমণ এবং আইনপ্রক্রিয়া কোনটিই এদেগর নেই, ইউরোপিয় দেশে প্রবেশের জন্য এদের ট্রানজিট ইতালির উত্তরাঞ্চল। যেখানে প্রতিটি কন্যাশিশু মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে দিন অতিবাহিত রয়েছে। ভেন্তিমিগলিয়ার রাস্তায় এই শিশুরা অনিরাপদ, ভয়ঙ্কর জীবন কাটাচ্ছে।’

সংস্থাটি জানায়, একটু খাদ্য এর আশ্রয়ের লোভ দেখিয়ে অভিবাসী শিশু-কিশোরীদের ইতালির বিভিন্ন অঞ্চলে পাঠানো হচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে রোম, ভেনেতো, আবরুজু, মার্সে এবং সার্দিনিয়া দ্বীপ। ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের মার্চ পর্যন্ত ১ হাজার ৯০০’রও বেশি কন্যাশিশুকে যৌনকর্মের জন্য ইতালির বিভিন্ন প্রান্তে পাঠানো হয়েছে।

মিলানো আরো বলেন, ‘এটি অপ্রত্যাশিত যে, আমাদের দেশ অসহায় কন্যাশিশুদের এমন কাজে লিপ্ত করার প্রক্রিয়া বন্ধ করতে পারছে না এবং পাচারকারীদের নেটওয়ার্ক ক্রমেই বিস্তৃত হচ্ছে।’ এর আগে অক্সফামের প্রতিবেদনে দেখা যায়, অনিশ্চয়তা নিয়ে নিরাপদ জীবনের প্রত্যাশায় যারা ইতালি থেকে ফ্রান্সের সীমান্তে পৌঁছতে সক্ষম হয়েছে দেশটির সীমান্ত রক্ষী বাহিনী অবৈধভাবে তাদের আবার ইতালিতে ফেরত পাঠাচ্ছে। গার্ডিয়ান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ