প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুরবানির গরুর হাটের নিরাপত্তা কাদের জন্য?

রবিউল আলম : প্রতিবছর কোরবানীর ঈদ আসলে পুলিশের বিশেষ টিম গরু হাটের নিরাপত্তা নিয়ে বিশেষ সভা করেন। সভায় গরুর হাটের ইজারাদারদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। নিরাপত্তার বিষয়ে একতরফা আলোচনা হয় এবং ইজারাদারদের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও নিশ্চিত করা হয়। সর্বসাধারণের অভিযোগ করার স্থান কোথায় ? ইজারাদার ইজারার শর্ত অমান্য করে অতিরিক্ত খাজনা আদায় করলে বিচার কোথায় হবে তা সর্বসাধারণের জানা নাই। আবার অতিরিক্ত খাজনা আদায়ের জন্য পুলিশ প্রশাসনকে কোন ক্ষমতাও প্রদান করা হয় নই।

অতিরিক্ত খাজনা আদায়ের জন্য জেল-জরিমানা করার কোন ভ্রাম্যমান আদালতের ব্যবস্থাও সিটি কর্পোরেশনগুলো করেন নাই। গরুর হাটের নিরাপত্তার নামে গরুর হাটের ইজারাদারদের নিরাপত্তা হয়ে যায় পুলিশের অজান্তেই। র‌্যাবের ডিজি বেনজির আহম্মেদ পুলিশ কমিশনার থাকাকালীন মিডিয়াসহ ইজারাদার, সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান, মাংস ব্যবসায়ী সমিতি, পরিবহনের নেতৃবৃন্দ, নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতিনিধি সহ সকলের সমন্বয়ে আলোচনা সভা করতেন।

লেখক : ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব, বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতি/সম্পাদনা: মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত