প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কয়লা খনির বিপুল লোপাটে শুড়ির সাক্ষী মাতাল: রিজভী

শিমুল মাহমুদ: বড় পুকুরিয়া কয়লা খনির বিপুল পরিমান কয়লা লোপাটের ঘটনায় কর্তৃপক্ষের শুড়ির সাক্ষী মাতাল বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।  তিনি বলেন, কয়লা খনির দুর্নীতির খবরে দেশ-বিদেশ যখন সরগরম। অর্থাৎ রোগী মরিবার পর ডাক্তার আসিলেন।

শুক্রবার (২৭জুলাই) নয়াপল্টনস্থ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, বড় পুকুরিয়া কয়লা খনির বিপুল পরিমাণ কয়লা লোপাট হওয়া বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উদাসীন থাকাটা রহস্যজনক। তাছাড়া কয়েক বছর ধরে লোপাট হয়ে গেল লক্ষ লক্ষ টন কয়লা, অথচ খনি কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি। দুদক তখন তদন্ত শুরু করে, দুদক হচ্ছে সরকারের দুর্নীতি ধোয়ার মেশিন। আর বিরোধীদলের জন্য দুদক টর্চারিং মেশিন। দুদকের তদন্ত আইওয়াশ মাত্র।

তিনি বলেন, খনির কয়লা উৎপাদন বন্ধ থাকার ঘোষণা, কয়লা সরবরাহ বন্ধ হয়ে আসা, গত বছর জুলাইয়ে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের একটি ইউনিট বন্ধ হয়ে যাওয়া এবং গত রবিবার থেকে বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি সম্পূর্ণ বন্ধ হওয়ার পরও মন্ত্রণালয়ের হুঁস হলো না কেন, তাতেই প্রমাণিত হয়- ক্ষমতাসীন মহলের গ্রীণ সিগন্যাল ছাড়া লক্ষ লক্ষ টন কয়লা অদৃশ্য হয়ে যায়নি।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, সরকারের মুখে উন্নয়নের জোয়ার, কাজে দুর্নীতির পাহাড়। দুর্নীতি, সুপার দুর্নীতি, মেগা দুর্নীতিরই জয়জয়কার। শেয়ার মার্কেট থেকে শুরু করে পদ্মা সেতু হয়ে ব্যাংক-বীমা-আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং প্রশ্নফাঁসের মাধ্যমে প্রাইমারী স্কুল থেকে বিশ^বিদ্যালয় পর্যন্ত পরীক্ষা ও সরকারী চাকুরীতে নিয়োগ পরীক্ষার হাইপার দুর্নীতি মহা ধুমধামেই চলছে এই সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ