প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘জীবনে কোনোদিন জ্যামে পড়িনি’

ইমতিয়াজ মেহেদী হাসান : এই যাহ্, দেরি হয়ে গেছে। এখনই বের হতে হবে। নইলে ‘জ্যাম’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান শেষ হয়ে যাবে। যানজট মাড়িয়ে গিয়ে দেখা গেলো, অতিথিরা চলে এসেছেন যথারীতি। চলছে অনুষ্ঠানও। সেখানে পাওয়া গেলো কিংবদন্তি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানকে।

এই প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন,‘শেলী মান্না তার প্রযোজনায় যে ছবিটি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন সেই ছবিটির নাম ‘জ্যাম’। এই শব্দটি আমাদের অনেক কষ্ট দেয়। তবে আমি আমার জীবনে কোনোদিন জ্যামে পড়িনি। কারণ জ্যামটা মাথায় রেখেই আমি ঘর থেকে বের হই। আহমেদ জামান চৌধুরী গল্প লিখেছেন, পান্থ শাহরিয়ার ছবিটির চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন, শেলী মান্না প্রযোজনা করছেন। নির্মাণ করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়মুল। তাদের সবাইকে আমি চিনি। সবাইকে একটা কথা মনে রাখতে হবে। ব্যক্তি, সমাজ, পারিবারিক, রাজনৈতিক জীবন পুরোটাই আমরা জ্যামের মধ্যে আবদ্ধ।’

শামসুজ্জামান বলেন, ‘এই জ্যাম থেকে বাঁচার একটাই পথ আছে। জ্যামকে ছোটাবার জন্য যে বুদ্ধির বিন্যাস প্রয়োজন, সেটা মাথায় রাখতে হবে। মাননীয় প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম একটা সুন্দর কথা বলেছেন যে ‘বঙ্গবন্ধু বুঝেছিলেন আমাদের চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে হবে।’ পশ্চিম পাকিস্তানের মাথা থেকে চলচ্চিত্রের জ্যাম তিনি ছুটিয়ে দিয়েছিলেন। আজকে আমরা প্রমাণ করেছি। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন আমরা একটা জায়গাতে এনে দাঁড় করিয়েছি। আমরা যদি আমাদের মাথার জ্যাম ছোটাতে পারি তাহলে আমরা অনেক দূর এগিয়ে যাবো।’

বয়সের কারণে অভিনয় কমিয়ে দিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে গুণী এই অভিনেতা বলেন, ‘না, অভিনয় বয়সের ধার ধারে না। আসলে আমার শরীরের চেয়েও বেশি খারাপ এখনকার নাটক-সিনেমার গল্প। তাই অভিনয়ে অনিয়মিত। শরীর খারাপ বলে কাজ করছি না ব্যাপারটি তা নয়। আমি কাজ করে আনন্দ পাই, আমার সঙ্গে যায় এমন চরিত্র পেলেই অভিনয় করছি।

দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বন্ধ থাকা মান্নার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘কৃতাঞ্জলী কথাচিত্র’ চালু করছেন মান্নার স্ত্রী শেলী মান্না। সেখান থেকেই নির্মিত হচ্ছে ‘জ্যাম’ ছবিটি। এটি পরিচালনা করবেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত