Skip to main content

আমাদের শিক্ষার্থীদেরকে বিকশিত হতে দেওয়া হচ্ছে না

ড. শফিউদ্দিন আহমেদ: পৃথিবীর অন্যান্য রাষ্ট্রের ছেলে মেয়েদের তুলনায় আমাদের ছেলে-মেয়েরা যথেষ্ট মেধাবী। খেয়াল করলে দেখবেন, তারা যখন বাইরে যায় তখন সেখানে পড়াশুনায়, উদ্ভাবনে, উদ্যোক্তা হিসেবে ভালো কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখে। কিন্তু এখানে তারা তা পারছে না। কেনো পারেনা? কারণ, আমি নিজে তাকে সেই শিক্ষা দিতে পারছি না। একটা জাতির শিক্ষক, শিল্পী, সাহিত্যিক, কবি, বুদ্ধিজীবী যখন আঁতেল, দলকানা, পরগাছা হয়ে যায়, তখন সেই জাতি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। আমরা এখন সেই সময়টা পার করছি। ফলে আমাদের প্রজন্ম ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। ২০১৩ সালে আমি যুক্তরাজ্যের প্রায় ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর গবেষণা চালাই। সেখানে দেখলাম, ভারত,বাংলাদেশ যারা ওখানে পিএইচডি করে তাদের থিসিসের নিচে লিখে দেয় উড়হ’ঃ ঃড় নব ঢ়ঁনষরংযবফ. অর্থাৎ এরা গরীব দেশ থেকে এসে, পড়ছে। পড়ে চলে যাক। আমাদের এসব ব্যাপারেও সতর্ক হওয়ার সময় এসেছে। আমি ছিচল্লিশ বছর শিক্ষকতা করতে গিয়ে দেখেছি, আমাদের ছেলে মেয়েরা খুবই মেধাবী। কিন্তু তাদেরকে বিকশিত হতে দেওয়া হচ্ছেনা।পরিচিতি : সাবেক অধ্যাপক, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়/ মতামত গ্রহণ : মো.এনামুল হক এনা / সম্পাদনা :ফাহিম আহমাদ বিজয়

অন্যান্য সংবাদ