Skip to main content

চুমুর ছবি তোলা সেই ফটোগ্রাফারের ফেসবুক আইডি হ্যাক

ডেস্ক রিপোর্ট: সোমবার দুপুরে ফটোগ্রাফার জীবন আহমেদের ফেসবুকে দেয়া একটি যুগলের চুম্বনের ছবি গত ২৪ ঘণ্টায় আলোচনা-সমালোচনার ঝড় তুলেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এরই মধ্যে আজ মঙ্গলববার দুপুরে তিনি জানান, তার আইডি হ্যাক হয়েছিল। আর তার ফেসবুক ওয়ালে সেই হ্যাকার স্ট্যাটাস দেয়- আজ থেকে সাংবাদিকতা থেকে বিদায় নিলাম। কিছ ুসময় পর জীবন আহমেদ নিজের আইডি উদ্ধার হওয়া নিয়ে যে পোস্ট দেন তা হলো- ‘আমার ফেসবুক আইডি হ্যাক হবার ২ ঘণ্টা পর ফেরত পেলাম। নিচের এই স্ট্যাটাস আমার দেয়া না। কেও বিভ্রান্ত হবেন না। আমার আইডি থেকে বেশ কিছু পোষ্ট ও গায়েব দেখছি। ধন্যবাদ আমার আইটি স্পেশালিষ্ট বন্ধুকে আইডি ফেরত পেতে সহযোগীতা করবার জন্য।’ এদিকে কালের কণ্ঠ অনলাইনে প্রকাশিত এক খবর বলা হয়, মঙ্গলবার সকালে জীবন আহমেদ নিজ পেশার লোকজনে দ্বারা হামলার শিকার হন। টিএসসির যে স্থানে ছবিটি তোলা হয়েছে সেখানেই তাকে প্রকাশ্যে মারধর করা হয়েছে জীবন আহমেদকে। লাঞ্ছনাকারীরা সকলেই আলোকচিত্রশিল্পী বলে জানা গেছে। একটি ইংরেজি দৈনিকের এক আলোকচিত্র সাংবাদিকেরও নাম যুক্ত রয়েছে এই ঘটনায়। এ নিয়ে কালের কণ্ঠকে তিনি জানান, আমি কার বিরুদ্ধে কথা বলবো? তিনি বলেন, আমার পেশার লোকেরাই আমাকে মেরেছে। আমি কিছু বলতাম না তারা যদি আমাকে আড়ালে নিয়ে গিয়ে মারধর করতো। কিন্তু তারা আমাকে মেরেছে প্রকাশ্যে টিএসসিতে। তিনি আরও বলেন, আমাকে মারার সময় তারা আমাকে বলছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের নির্দেশে মারছে। আমি নাকি কলঙ্কিত করেছি আলোকচিত্রশিল্পী সমাজকে। কিন্তু প্রক্টর স্যার একটু আগে ফোন দিয়ে বললেন, এরকম নির্দেশনা তিনি দেননি দিতে পারেন না। আমিও জানি তারা গায়ের ঝাল মিটিয়েছে। উল্লেখ্য, সেই ভাইরাল ছবিতে দেখা যাচ্ছে- রাজধানীর টিএসিতে এক যুগল বৃষ্টির মধ্যে প্রকাশ্যে চুমু খাচ্ছে। ‘বর্ষা মঙ্গল কাব্য, ভালোবাসা হোক উন্মুক্ত’ ক্যাপসনে ছবিটি তিনি সোমবার দুপুরে পোস্ট করার পরপরই এ নিয়ে দেখা দেয় তীব্র প্রতিক্রিয়া। ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ছবিটি হাজার শেয়ার হতে থাকে। যদিও ছবিটি একটি কেউ বলছেন প্রেমের জয়, কেউ বলছেন যৌনতা। এরই মধ্যে অনেকেই প্রমাণ হিসেবে দেখিয়েছেন এটি একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের দৃশ্য। তবে এতোকিছুর পরই অধিকাংশই বেশ পজিটিভ কমেন্টেই ছবিটি পোস্ট করেছেন বা এই ছবি নিয়ে আশাব্যঞ্জক মন্তব্য করেছেন।

অন্যান্য সংবাদ