প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাকিস্তানের নির্বাচনে আইএসআই সবসময়ই একটা ভূমিকা রাখে: ইমরান

লিহান লিমা: পাকিস্তানের নির্বাচনে দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা, আইএসআই সবসময়ই একটা ভূমিকা রাখে বলে মন্তব্য করেছেন তেহরিক-ই-ইনসাফের প্রধান ইমরান খান। রোববার ভারতীয় গণমাধ্যম ইয়নকে দেয়া সাক্ষাতকারে ইমরান এই মন্তব্য করেন।

তবে নির্বাচনে নিরাপত্তা বাহিনীর ভূমিকার কথা বললেও পিটিআই এর প্রতি সেনাসমর্থনের কথা অস্বীকার করেছেন ক্রিকেটার, প্লেবয় এবং রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া ইমরান খান। সেনাবাহিনী ও নিরাপত্তা সংস্থা দ্বারা সমর্থনের অভিযোগ অস্বীকার করে ইমরান বলেন, ‘২০১৩ সালের আগে এই অভিযোগ ছিল। কিন্তু ২০১৩ সালের নির্বাচনের পর সবাই এখন নওয়াজ শরীফের দলকে সমর্থন করছে। এটি এই প্রথম নয়, জেনারেল জিয়াউল হক এই দলে ব্যবসায়ী থেকে নওয়াজ রাজনীতিবিদ হয়েছেন। ১৯৯০ সালে আইএসআই তাকে সমর্থন দিয়েছে।’ ইমরান আরো বলেন, ‘জনসমর্থন পিটিআইএর দিকে, কিন্তু আমাদের অর্জনকে সামরিক সমর্থিত বলে দোষারোপ করা হচ্ছে।’

এই সাক্ষাতকারে ইমরান আরো বলেন আরো বলেন, ‘পাকিস্তান দেউলিয়া, আমাদের নিজেদের ব্যয় মেটানোর সাধ্য নেই, নতুন সরকারকে প্রতিষ্ঠানগুলো শক্তিশালী করা ছাড়াও দুর্নীতি বন্ধ এবং রাজস্ব বাড়াতে হবে। ভারতের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক বাণিজ্যের দ্বারা উন্মুক্ত করবে, বাণিজ্য একটি বিশাল বাজার, দুই দেশই এর থেকে লাভবান হবে।’ ইমরান বলেন, ‘পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের বর্তমান সমস্যা কাশ্মীর নিয়ে। আমি বিশ্বাস করি, কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক রাখা প্রয়োজন।’ এমন সময় নির্বাচিত হলে যুক্তরাষ্ট্রের অধীনে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাবেন কি না এমন প্রশ্নে ইমরান বলেন, ‘অবশ্যই আমাদের শান্তি এবং স্থিতিশীলতা প্রয়োজন। আমি সবার সঙ্গেই ভাল সম্পর্ক রাখতে চাই।’

১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে স্বাধীন হওয়ার পর পাকিস্তান প্রায় অর্ধেকটা সময়ই সামরিক শাসকদের অধীনে কাটিয়েছে। অভুত্থান, সেনা-শাসন ও নিয়ন্ত্রণের পাক-রাজনীতি ও গণতন্ত্রে এবারই প্রথম কোন গণতান্ত্রিক সরকার তার মেয়াদ পূর্ণ করেছে। বুধবার নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শহিদ খাকান আব্বাসীর পাকিস্তান মুসলীম লীগ-(পিএমএল-নওয়াজ), সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারীরর পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) এবং ইমরান খানের পিটিআই এর মধ্যে ত্রিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বীতা হবে। ইয়ন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ