Skip to main content

ভারতে গবাদি পশুর চাইতেও খারাপ অবস্থায় আছে মেয়েরা: নোবেলজয়ী কৈলাস সত্যার্থি

লিহান লিমা: ভারতে মেয়েরা গবাদি পশুর চেয়েও খারাপ অবস্থায় আছে বলে মন্তব্য করেছেন শান্তিতে নোবেলজয়ী শিশু অধিকার কর্মী কৈলাস সত্যার্থি সম্প্রতি দেশটির ক্যাবিনেটে মানবপাচার বিরোধী বিল অনুমোদিত হলে এর প্রশংসা করে তিনি এই মন্তব্য করেন। এই সময় এই মানবাধিকার কর্মী পার্লামেন্টকে কোন রকম বিলম্ব করা ছাড়া এই বিল পাশ করার আহ্বান জানান। জি ডিজিটালকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সত্যার্থি বলেন, ‘মানবপাচার বিরোধী এই বিল সেরা আইনী খসড়ার মধ্যে অন্যতম। এটি মানবপাচারের মত জঘন্য অপরাধীদের কঠোর শাস্তি দিবে।’ কৈলাস আরো বলেন, ‘সারা বিশ্বে এখন মানব পাচার একটি অন্যতম বিষয়, এই সময় এই বিল একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘এতদিন মানবপাচারকে শুধুমাত্র সামাজিক এবং অর্থনৈতিক ক্ষতি হিসেবেই দেখা হত। এটিকে অন্যান্য অপরাধের মধ্যে ধরা হত না। এই বিলের মাধ্যমে মানবপাচারকারী শুধু শাস্তি ভোগই করবে না সেই সঙ্গে তার ব্যাংক, যাবতীয় সম্পদ জব্দ করা হবে।’ ১৮ জুলাই ভারতের লোকসভায় ‘মানবপাচার প্রতিরোধ বিল’ প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। ভারতের নারী এবং শিশু উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী মানেকা গান্ধী এই বিলটি লোকসভার উত্থাপন করেন। ২৩ জুলাই এই বিল নিয়ে পার্লামেন্টে আলোচনা হবে। নতুন এই বিলে মানবপাচার প্রতিরোধ, উদ্ধার এবং পাচারের শিকার হওয়া ব্যক্তিদের পুনবার্সনের কথা বলা হয়েছে। ইয়নের খবরে বলা হয়, বিশ্বজুড়ে মানবপাচার মাদক এবং অস্ত্র চোরাচালানের পর তৃতীয় বৃহত্তম অপরাধ। ভারত মানবপাচারের ট্রানজিট দেশ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ভারতের জাতীয় অপরাধ সংরক্ষণ ব্যুরো-এনসিআরবি এর মতে, পূর্ববর্তী বছরের চেয়ে ২০১৬ সালে ভারতে মানবপাচারের হার ২০ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। মানবপাচারের ক্ষেত্রে শীর্ষে আছে পশ্চিমবঙ্গ। ২০১৬ সালে ভারতে ১৫ হাজার ৩৭৯ টি মানবপাচারের ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে। ইয়ন।

অন্যান্য সংবাদ