প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গরু পাচারকারী সন্দেহে মুসলিম যুবক হত্যা: প্রতিবাদে উত্তাল ভারত

ওমর শাহ: ভারতের রাজস্থানের আলওয়ার জেলায় গরু পাচারকারী সন্দেহে আকবর খান নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিক্রিয়ায় ভারতীয় রাজনৈতিক মহলে প্রতিবাদের ঝড় বইছে। প্রতিবাদে মাঠে নেমে এসেছেন মুসলিম নেতারা। তারা এ ঘটনাকে নৃশংসতার চূড়ান্ত সীমানা বলে আখ্যায়িত করেছেন। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অমান্যকারীদের কঠোর ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও দাবি করেন মুসলিম নেতারা।

রোববার দৈনিক সাহারায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের প্রধান সাইয়েদ আরশাদ মাদানি। তিনি বলেন, ‘এটা শুধু হত্যা নয়, অমানবিকতা ও নৃশংসতার চূড়ান্ত সীমানা। আফসোস, সুপ্রিম কোর্টের কঠোর নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও নৃশংসতা প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না। সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রকে পৃথক আইন করারও নির্দেশ দিয়েছিল। আমরা ভেবেছিলাম সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর সরকার কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। কিন্তু এখন চারপাশে হতাশা ছাড়া আর কিছুই দেখতে পাচ্ছি না।’

আরশাদ মাদানি আরও বলেন, যে দেশে গুরু অগ্নি বেশের মতো নিরপেক্ষ মানুষের ওপর হামলা হতে পারে, সেদেশে নিজ ধর্ম নিয়ে মুসলিমদের স্বাধীনভাবে বসবাস করা অকল্পনীয় হয়ে উঠছে। অল ইন্ডিয়া মজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমীনের প্রধান ও পার্লামেন্ট সদস্য আসাদ উদ্দীন ওয়াইসি বলেন, ভারতের সংবিধানে গরুদের বাঁচার অধিকার দেওয়া হলেও মুসলিমদের বাঁচার কোন অধিকার রাখা হয়নি । চার বছরের মোদি জমানায় গণপ্রহারকারীরাই রাজত্ব করেছেন।’

জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ মাদানী বলেন, যারা আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছে, তারা গরু-আইনের আওতায় নিজেদের নিরাপদ মনে করছে, ফলে তাদের প্রতিরোধ সম্ভব হচ্ছে না । গত বছর আলওয়ারে পেহলু খান ও ওমর খান নামের দুইজনকে হত্যা করা হয়েছে। অথচ পুলিশ তাদের নিরাপরাধ ঘোষণা দিয়ে ছেড়ে দেয়। এভাবে গোরক্ষকদের কোনো ভাবেই প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না। সরকারের উচিত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে কঠোর আইন করা।

উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহের শুরুতে রাজস্থানের আলওয়ার জেলায় গরু পাচারকারী সন্দেহে আকবর খান নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে খুন করা হয়। হরিয়ানার বাসিন্দা আকবরের ওপর যখন হামলা চালানো হয় তখন তাঁর সঙ্গে দুটি গরু ছিল। রামগড় তেহসিলের কাছে আসতেই কয়েকজন তাঁর উপর হামলা করে। এই ঘটনায় পুলিশ এখন পর্যন্ত দু’জনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানিয়েছে,গরু পাচারের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল কিনা তা এখনও পরিস্কার নয়। সূত্র: ফাতেহ২৪

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ