প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘এমন ঘটনা ঘটবে কল্পনাও করিনি’

মহিব আল হাসান : তরুণ নির্মাতা রাশেদ রাহা। ‘নোলক’ সিনেমা দিয়ে ঢাকাই সিনেমায় পরিচালকের খাতায় নাম লেখান তিনি। ‘নোলক’ সিনেমা নির্মাণের আগে রাজধানীর পাঁচতারকা হোটেলে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে ছবির নাম, নায়ক-নায়িকা ও পরিচালকের নাম ঘোষণা দেন ছবির প্রযোজক সাকিব ইরতেজা চৌধুরী (সনেট)।

ইতিমধ্যে ছবির দৃশ্যধারণের ৮৫ ভাগ কাজশেষ হয়েছে। এরপর থেকে তাকে পরিচালকের দায়িত্ব থেকে সরে দিয়ে অন্য পরিচালক নিয়ে কাজ করা হচ্ছে , এমন অভিযোগ এনে ইফতেখার চৌধুরীর বিরুদ্ধে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন রাশেদ রাহা। একই ঘটনায় প্রযোজক সাকিব ইরতেজা চৌধুরী সনেটের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ প্রযোজক-পরিবেশক সমিতিতে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। রোববার রাশেদ রাহা এই অভিযোগ করেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি এবং বাংলাদেশ প্রযোজক-পরিবেশক সমিতিতে লিখিত অভিযোগে রাশেদ রাহা উল্লেখ করেছেন, ‘যথাবিহীত সম্মানপূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে, আমি রাশেদ রাহা। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির একজন সদস্য। আমি ২৩/১১/২০১৭ তারিখে ‘নোলক’নামে একটি চলচ্চিত্র পরিচালনার জন্য চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে নিবন্ধন করি। দেশের বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা ও টেলিভিশন সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে ঢাকার একটি পাঁচতারকা হোটেলে বর্ণাঢ্য মহরতের মাধ্যমে আমাকে ছবিটি পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়। শতভাগ আন্তরিকতার সঙ্গে ইতোমধ্যে আমি ছবির ৮৫ ভাগ শুটিং সম্পন্ন করি। গত ১ ডিসেম্বর থেকে টানা ২৮ দিন ছবির শুটিং হয়েছে ভারতের হায়দরাবাদ রামোজি ফিল্ম সিটিতে। অভিনয়শিল্পীরা ছিলেন- শাকিব খান, ববি, ওমর সানি, মৌসুমী, তারিক আনাম খান, নিমা রহমান, রেবেকা, কলকাতার রজতাভ দত্ত, সুপ্রিয় দত্ত, অমিতাভ প্রমুখ।

রাশেদ রাহা আরও লিখেছেন, ‘ছবির বাকি অংশের শুটিং করার জন্য আমি অনেকদিন থেকেই প্রস্তুত। কিন্তু মাসখানেক আগে এ ছবির প্রযোজক সাকিব ইরতেজা চৌধুরী (সনেট)-এর পক্ষ থেকে বাকি অংশের শুটিংয়ের জন্য পরিচালক ইফতেখার চৌধুরীর সঙ্গে পরামর্শ করতে বলা হয়। ছবির নির্মাণকৌশল ও গোপনীয়তা বজায় রাখার স্বার্থে কারও সঙ্গে পরামর্শ করতে আগ্রহী ছিলাম না। বিভিন্ন সূত্রে হঠাৎ জানতে পারি, আমাকে ছাড়াই পরিচালক ইফতেখার চৌধুরীকে দিয়ে নোলক ছবির বাকি অংশের কাজ শেষ করার জন্য প্রযোজক ইতোমধ্যেই একটি দল নিয়ে শনিবার(২১ জুলাই) কলকাতায় পৌঁছেছেন। পুরো ব্যাপারটা ঘটেছে আমার অজ্ঞাতে।’

পরিচালক সমিতিতে অভিযোগ দেওয়ার পর রাশেদ রাহা আমাদের সময় ডটকমকে বলেন, ‘ আমরা তরুণরা একটা স্বপ্ন নিয়ে চলচ্চিত্রে কাজ করতে আসি। একটা স্বপ্ন নিয়ে কাজে নামি। আর এই সিনেমাটি আমার একটা স্বপ্নের সিনেমা ছিল। সবচেয়ে বড় বিষয় আমার জীবনের প্রথম সিনেমা। শুরুতেই আমার সাথে এমন ঘটনা ঘটবে কল্পনাও করতে পারিনি। আমাদের (তরুণ) সুযোগ না দিলে কিভাবে নতুন প্রজন্ম আসবে? নতুনদের সুযোগ দিলেই অনেক ভালো করবে।’

কেন এই সিনেমা থেকে আপনাকে অপসারণ করা হলো? এমন প্রশ্নের উত্তরে এই নির্মাতা বলেন, ‘ আমি কিছুই জানি না। কি কারণে এই সিনেমা থেকে আমাকে বাদ দিয়ে অন্য পরিচালককে নিয়ে কাজ করা হচ্ছে, তা আমার বুঝে আসছে না। আমি পরিচালক সমিতিতে অভিযোগ করছি, এখন দেখি তারা কি সিদ্ধান্ত নেন সেটার অপেক্ষায় আছি।’

এ প্রসঙ্গে পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আল খোকন বলেন, ‘আমরা ‘নোলক’ সিনেমার বিষয়ে অভিযোগ হাতে পেয়েছি, এটা সত্যিই দঃখজনক। সাংগাঠনিক নিয়মানুযায়ী এর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’

ছবির বর্তমান পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী এবং প্রযোজক সাকিব ইরতেজা চৌধুরী ভারতে অবস্থানের কারণে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

এদিকে ‘নোলক’ শুটিং করতে এখন ভারতে মৌসুমী, ওমর সানি, ববি, তারিক আনাম খান খান, রূপসজ্জাশিল্পী মানিকসহ আরও অনেকে ভারতে অবস্থান করছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত