প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্রাসেলসে ডানপন্থী প্রতিষ্ঠান ‘দ্য মুভমেন্ট’ প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা স্টিভ ব্যাননের

লিহান লিমা: ইউরোপে ডানপন্থী আদর্শ মজবুত করতে ফাউন্ডেশনের আদলে একটি রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানের পরিকল্পনা করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক বিতর্কিত পরামর্শক স্টিভ ব্যানন। ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশের সদরদপ্তর ব্রাসেলসেই এর সদরদপ্তর স্থাপনের পরিকল্পনা করছেন তিনি।

ডানপন্থী ওয়েবসাইট ব্রেইটবার্ট নিউজের সাবেক প্রধান ব্যানন সম্প্রতি ডেইলি বিস্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানান, জর্জ সরোসের ‘ওপেন সোসাইটি ফাউন্ডেশন’ এর বিপরীতে ডানপন্থী একটি প্রতিষ্ঠানের ছক কষছেন তিনি। ব্যানন বলেন, ‘সরোস একটা শয়তান হলেও সে অত্যন্ত বুদ্ধিমান।’ ব্যানন আরো বলেন, তার স্বপ্নের ফাউন্ডেশন ‘দ্য মুভমেন্ট’ ইউরোপজুড়ে ডানপন্থী দলগুলোর কার্যক্রম, সংযোগ এবং বিস্তার নিয়ে গবেষণা করবে ও পর্যাপ্ত সমর্থন প্রদান করবে।

ব্যানন বলেন, ২০১৯ সালের মার্কিন মধ্যবর্তী নির্বাচনের আগেই ‘দ্য মুভমেন্ট’ প্রতিষ্ঠা করা হবে। যার সদরদপ্তর হতে পারে ব্রাসেলসে। এই প্রকল্পে কি পরিমাণ অর্থ দেওয়া হবে এবং তহবিল কোথা থেকে আসবে সেবিষয়ে কোন তথ্য দেননি ব্যানন। এর আগে মে মাসে নিউইয়র্ক টাইমসকে ব্যানন বলেছিলেন, ‘মানুষ এখন খুব ভালভাবেই বুঝতে পারছে যে, প্রথা-বিরোধী চিন্তাভাবনা বিলাসিতা ছাড়া আর কিছুই নয়।’

গত ১২ মাসে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ডানপন্থী নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছেন ব্যানন। এর মধ্যে রয়েছেন ব্রিটেনের ইউকিপ দলের সাবেক নেতা নাইজেল ফারাজে, ফ্রান্সের ন্যাশনাল ফ্রন্টের নেত্রী ম্যারিন লি পেন এবং হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান। ডানপন্থীও জাতীয়তাবাদী এবং শ্বেতাঙ্গ-শ্রেষ্ঠত্ববাদী ব্যারন ট্রাম্পের প্রধান কৌশলগত পরামর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৬ সালের নির্বাচনে ট্রাম্পের ডানপন্থী আদর্শের জনপ্রিয়তা সৃষ্টি এবং তার জয়ের পেছনে মূখ্য ভূমিকা পালন করেন ব্যানন। তাকে ‘অন্ধকারের রাজপুত্র’ এবং ‘ছায়া প্রেসিডেন্ট বলে ডাকা হত। ফ্রান্সের অভিবাসন বিরোধী কট্টর ডানপন্থী নেত্রী ম্যারিন লি পেনের বন্ধু ও শুভাকাঙ্খীও তিনি। গার্ডিয়ান, আল জাজিরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত