প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বন্ধুকের নলের মুখে সমঝোতা নয়, যুক্তরাষ্ট্রকে ফ্রান্স

লিহান লিমা: যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কোন প্রকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিতে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রত্যাখ্যান করেছে ফ্রান্স। দেশটির বাণিজ্যমন্ত্রী ব্রুনো লি মারিয়ে বলেন, মাথার ওপর বন্দুকের নল নিয়ে আলোচনার টেবিলে বসা যায় না। ইউরোপিয় ইউনিয়নের স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের শুল্কারোপের প্রেক্ষিতে ফ্রান্স এই মন্তব্য করে।

লি মেরি বলেন, ‘দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যে যেখানে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে সেখানে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি বলে কিছু হতে পারে না।’ এই সময় তিনি আলোচনার টেবিলে আসার শর্তস্বরুপ যুক্তরাষ্ট্রকে ইউরোপের স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর শুল্কারোপের সিদ্ধান্ত বাতিল করার কথা বলেন।

এর আগে মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রী স্টিভেন ম্যানুচিন ট্রাম্পের আমলে কোন ভবিষ্যত বাণিজ্য চুক্তি হওয়া সম্ভব কি না এই প্রেক্ষিতে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিদেশি সহযোগিদের সঙ্গে বাণিজ্য বৈষম্য রুখতে অবশ্যই ভবিষ্যত বাণিজ্য চুক্তি করা হবে। তিনি বলেন, ‘যদি ইউরোপ মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিতে বিশ্বাস করে, আমরা মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর করতে প্রস্তুত, যেখানে কোন শুল্ক, অশুল্ক বাধা বা ভর্তুকি থাকবে না। এই তিনটি বিষয়ই মেনে চলা হবে। আমার বার্তা মার্কিন প্রেসিডেন্টের বার্তার মতই স্পষ্ট।’

ট্রান্স-আটলান্টিক বাণিজ্য চুক্তিকে ঝুঁকিতে ফেলার মার্কিন বাণিজ্য নীতি নিয়ে উদ্বিগ্ন ইউরোপিয় কর্তৃপক্ষ। সেই সঙ্গে ট্রাম্পের বাণিজ্য যুদ্ধের প্রেক্ষিতে এই গোষ্ঠিটি কূটনৈতিক চালও সমানতালে চালছে। জাপানের সঙ্গে ইইউ ব্লকের মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চীনও ইউরোপের সঙ্গে একই পথ বেছে নেয়ার কথা ভাবছে। স্পুটনিক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ