Skip to main content

সাভারে পৃথক ঘটনায় দুই শিশু ধর্ষণের শিকার, আটক ১

সাভার প্রতিনিধি: সাভারে পৃথক ঘটনায় দুই শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় এক ধর্ষককে আটক করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে সাভারের চাঁপাইন তালতলা এলাকার এক ভাড়া বাড়িতে ১০ বছরের এক শিশু শিক্ষার্থীকে কৌশলে প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া শাহিন মিয়া (১৮) তার কক্ষে নিয়ে যায়। পরে তার মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে ওই শিশুটির চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করলে ধর্ষক শাহিন কৌশলে পালিয়ে যায়। শিশুটি তার বাবা-মার সাথে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি স্কুলে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে লেখাপড়া করতো। অন্যদিকে, সাভারের ডগরমোড়া এলাকায় আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে রাসেল (২৪) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। শিশুটি স্থানীয় ব্রাক স্কুলের ২য় শ্রেণীতে লেখাপড়া করে বলে জানা গেছে। শিশুটির মা জানায়, তিনি বিভিন্ন বাসাবাড়িতে গৃহপরিচারিকার কাজ করেন। ১৪জুলাই শিশুটিকে বাসায় রেখে সে কাজে চলে যায়। কাজ থেকে বাড়ি ফিরে জানতে পারে বখাটে রাসেল তার শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করেছে। শিশুর মা বিষয়টি জেনে ফেলেছে টের পেয়ে বখাটে রাসেল এ ধর্ষণের ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য ধষিত ওই শিশুর মাকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। পরে শিশুটির মা বিভিন্ন জনের সাথে কথা বলে সাভার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ শনিবার রাতে বখাটে রাসেলকে আটক করে। এব্যপারে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহসিনুল কাদির বলেন, ধর্ষণের শিকার শিশু দুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

অন্যান্য সংবাদ