প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘শারীরিক যন্ত্রণা দিতেই খালেদা জিয়াকে কারাগারে রাখা হয়েছে’

জান্নাতুল ফেরদৌসী: বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছেন। শারীরিক যন্ত্রণা দিতেই যেন তাকে কারাগারে রাখা হয়েছে। সরকার প্রধানের এমন আচরণ তার প্রতিহিংসার বার্তা দেয়।

রোববার (২২ জুলাই) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, বারবার ইউনাইটেড হাসপাতালে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার দাবি জানানো হলেও সরকার ভ্রুক্ষেপহীন ও উদাসীন। যেন শারীরিকভাবে যন্ত্রণা দিতেই তাঁকে কারাগারের লাল দেয়ালের মধ্যে আটকিয়ে রাখা হয়েছে। এটা যেন এক ভয়াবহ প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার লক্ষ্য নিয়েই পরিকল্পনা প্রণয়ন করে এখন তা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। দেশনেত্রীর ওপর সরকার প্রধানের এই প্রতিহিংসা এক অশুভ অপশাসনেরই বার্তা দেয়। আমরা আবারও দলের পক্ষ থেকে সরকারের এই নির্দয় আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে তাঁর চিকিৎসার জন্য ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি।

গতকাল শনিবার বিকেলে কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া জানান, খালেদা জিয়া খুবই অসুস্থ।

এসময় আইনজীবী সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলীও খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন। একইসময়ে খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলামসহ তাঁর পরিবারের পাঁচজন কারাগারে প্রবেশ করেন। অন্যরা হলেন-বোনের স্বামী রফিকুল ইসলাম, ভাগ্নি সায়মা ইসলাম, ভাগ্নে ডা. মামুন ও মাসুদ।

উল্লেখ, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজা হয় বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার। সেদিন থেকেই পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পরিত্যক্ত কারাগারে রাখা হয়েছে তাকে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত