প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কফিনে ঢুকলেই ক্যাফের খাবারে ছাড়!

ডেস্ক রিপোর্ট : ক্যাফেটির মূল আকর্ষণ হলো একটি কফিন। থাইল্যান্ডের ব্যাংককে এই ‘কিড মাই’ ক্যাফে। যার অর্থ, নতুন ভাবনা।

নতুন ভাবনাই বটে! কর্তৃপক্ষের দাবি, ‘কিড মাই’ ক্যাফেতে উপাদেয় খাবার-দাবার, কফি তো মিলবেই, সঙ্গে মিলবে মৃত্যুর অভিজ্ঞতাও!

ক্যাফের অভ্যন্তরীণ সাজসজ্জাও মানানসই। তবে কফিনবন্দি হওয়ার বিশেষ অভিজ্ঞতার পাশাপাশি বিশেষ ছাড়, বিভিন্ন ধরনের পানীয় এবং কুকি পাওয়া যায় এখানে। ক্যাফের পানীয়গুলোর নামও বেশ অদ্ভুত! যেমন: জন্ম, যৌবন, বেদনাদায়ক, মৃত্যু ইত্যাদি।

কফি, খাবার-দাবার সবই মিলবে এখানে। খাবার বা পানীয়র দামে মিলবে বিশেষ ছাড়। কিন্তু, বিশেষ ছাড়ের সুযোগ পেতে হলে বিশেষ শর্ত মানাও জরুরি! কী সেই শর্ত?

ক্যাফেতে রাখা আছে একটি কফিন। এটির মধ্যে মাত্র ৩ মিনিট বন্দি হয়ে কাটাতে হবে। একেবারে মৃত মানুষের মতো। ব্যাস, খাবার বা পানীয় যা নেবেন, সব কিছুতেই পেয়ে যাবেন ডিসকাউন্ট।

অবাক করার, মাত্র ৩ মিনিট! তাও নাকি কফিনবন্দি হতে রাজি হন না বেশিরভাগ ক্রেতা। আর যারা রাজি হন, তারা দ্বিতীয়বার আর যেতে চান না ওই কফিনে।

জানা গেছে, ক্যাফেটি শুধুমাত্র ব্যবসায়িক উদ্দেশে তৈরি করা হয়নি। ব্যাংককের সেইন্ট জন’স ইউনিভার্সিটির দর্শন বিষয়ে পিএইচডি করছেন সহকারী অধ্যাপক ভিরানুত রোজানাপ্রাপা।

নিজের গবেষণার জন্যই তিনি এই ক্যাফে তৈরি করেছেন। এখানে যারা কফিনের ভেতরের বিশেষ অভিজ্ঞতা নেন, তাদের একটি নোট বইতে নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা লিখতে বলা হয়। একই সঙ্গে ক্যাফের ক্যাটালগ থেকে ক্রেতাদের নিজের শেষকৃত্যের জন্য একটি কফিন বাছাই করতে বলা হয়। এসব কিছুই নাকি অধ্যাপক ভিরানুতের গবেষণার কাজে আসবে।