প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজনীতি এখন ব্যবসা : মইনুল হোসেন

হ্যাপী আক্তার : তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন বলেছেন, রাজনীতি আগে মানুষ করতো ত্যাগের জন্য। আর এখন রাজনীতি হচ্ছে ব্যবসা, বাণিজ্য আর টাকা-পয়সা। যদি এখন রাজনীতিতে পরিবর্তন আসে তাহলে দেখা যাবে যারা এখন ক্ষমতায় আছে তারা কে কোথায় কী করেছে। দেশের বাহিরে তারা ভালো বাড়ি-ঘর করে টাকা-পয়সার ব্যবস্থা করে রেখেছেন।

বেসরকারি একটি টেলিভিশন ‘চ্যানেল আই’ এর তৃতীয় মাত্রা অনুষ্ঠানে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় মইনুল হোসেন বলেন, বাংলাদেশের শাসনতন্ত্র বঙ্গবন্ধু দিয়ে গেছেন। বাংলাদেশে হওয়ার পর যে কতগুলো ঘটনা ঘটেছে, এটি আমাদের দ্বারা ঘটতে পারে তা আমরা বিশ্বাস ছিলো না। বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু ও তার ছেলেসহ মেরে ফেলবে। রাসেলের মতো একটি বাচ্চা বাঁচার জন্য দৌঁড়াদৌঁড়ি করেছে তার পরেও তাকে মেরে ফেলছে। আমাদের দেশটির বাঙালীরা এতো নিষ্ঠুর ছিলো। কী হয়েছিল যে স্বাধীনতার পরে আমরা এতো নিষ্ঠুর হয়ে গেলাম। পিলখানা হত্যার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, শুধু মারেনি, তাদের স্ত্রীকে রেপ করেছে। আমি আমাদের বাঙালীর কাছ থেকে এমনটি আশা করতে পারি না।

এসময় তিনি বলেন, আগে দেশে কথা বলার একটা অধিকার ছিল। কোর্টের একটা প্রটেকশন ছিল, সংবাদ পত্রের একটি প্রটেকশন ছিল। বুদ্ধিজীবীরা যে কথা বলবে তার জন্য একটা শক্তি দরকার। শহীদ হবার জন্য কেউ তো কথা বলতে পারে না। এই যে একটি ভয়ের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে পুলিশ দিয়ে। ব্যাক্তিগত পর্যায়ে বিভিন্নভাবে ভয় দেখানো হয়, যেভাবেই হোক না কেন। শক্তি কিন্তু আসে রাজনীতিবিদদের কাছ থেকে।

তিনি বলেন, সত্য গোপন রেখে সমাধান দিতে পারবেন না। ইয়াবা ব্যবসার সাথে সকলেই জড়িত। এই ব্যবসার সাথে রাজনীতিবিদ ও পুলিশ অনেকেই জড়িত আছেন। এইজন্য পুলিশকে দোষ দিয়ে কোানো লাভ নেই। আপনি যদি আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা না করেন, ক্ষমতায় থাকাটাই সবচেয়ে বড় কাজ দেখেন। পুলিশ আপনাকে নিরাপত্তা দিচ্ছে, ক্ষমতায় রাখছে। পুলিশ তার কাজ করছে, এটি সকল দেশেই করে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত