প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আপনাদের ভালবাসার টানে মঞ্চে ফিরে আসে ‘রাঢ়াঙ’

সালমা খানম রানু: বাংলাদেশের মঞ্চনাটকের ইতিহাসে আরণ্যক নাট্যদলের ‘রাঢ়াঙ’ মাইলফলক। ২০০৪ সাল থেকে বিরতিহীন ভাবে প্রদর্শিত হয়ে আসছে নাটকটি। ১৮০ তম প্রদর্শণীর পর এবার একটা বিরতি। আবার মঞ্চে ফিরে আসে ‘রাঢ়াঙ’ আপনাদের ভালবাসার টানে। আপনিও স্বাক্ষী থাকুন এই এককালীন শেষ প্রদর্শণীর।

গত ১৮ জুলাই, সন্ধ্যা ৭টায় এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হল,বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে মঞ্চায়িত হলো আবার।‘রাঢ়াঙ’ সাঁওতালী শব্দ যার অর্থ দূরাগত মাদলের ধ্বনিতে জেগে উঠার আহ্বান। ভারতীয় উপমহাদেশে ঔপনিবেশিক ব্রিটিশের বিরুদ্ধে যারা প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধে রুখে দাঁড়ায় তারা সাঁওতাল। ১৭৮৪ সালে হাজারীবাগ জেলার কালেক্টর ক্লিভল্যান্ডকে হত্যার মাধ্যমে এর সূত্রপাত। তারপর ১৮৫৫ সালে সিধু, কানু, চাঁদ ও ভৈরবের নেতৃত্বে সাঁওতাল বিদ্রোহ এক ঐতিহাসিক প্রতিরোধ।

যার পরবর্তী অধ্যায় সর্বভারতীয় প্রতিরোধ ১৮৫৭ সালের সিপাহী বিদ্রোহ। এ অঞ্চলের আদিবাসীদের ভূমির অধিকারের লড়াইয়ে সাঁওতালদের অবদান কিংবদন্তিসম উপাখ্যান। ভারত বিভক্তির পর ইলা মিত্রের নেতৃত্বে নাচোলের কৃষক আন্দোলনে সাঁওতালদের ভূমিকা আজও সংগ্রামী কৃষক ও আদিবাসীদের অধিকার আদায়ে লড়াইয়ে আলোকবর্তিকা। ২০০০ সালে স্বাধীন বাংলাদেশের নওগাঁয় আলফ্রেড সরেনের নেতৃত্বে ভূমির জন্য লড়াই ও আলফ্রেড সরেনের আত্মত্যাগ, সাঁওতালদের এই দীর্ঘ সংগ্রামের বিশাল উত্তরাধিকারকে মঞ্চে তুলে ধরার প্রয়াসই রাঢ়াঙ।

লেখক: নাট্যকর্মী/সম্পাদনা: মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ