প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইসরায়েলকে ইহুদি জাতি রাষ্ট্র ঘোষনায় বিশ্বব্যাপি ক্ষোভ

কায়কোবাদ মিলন: ইসরায়েলকে ইহুদিদের জাতি রাষ্ট্র গঠনের ঘোষণায় বিশ্বব্যাপি ব্যাপক নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া হয়েছে। সমালোচকরা একে উস্কানিমূলক ও বর্ণবাদি বলে অভিহিত করেছেন।
নতুন এই আইন দেশকে বিভক্তির দিকে ঠেলে দেবে এবং জাতিগত বিরোধ এবং সহিংসতা বাড়াবে বলেও অভিমত ব্যক্ত করা হয় ।সমালোচকরা বলেছেন, নতুন আইনে দেশের গণতান্ত্রিক নীতিমালা ভুলন্ঠিত হবে ,ইহুদিদের প্রাধান্য ও প্রভাব বৃদ্ধি পাবে এবং আরব সম্প্রদায় চিরস্থায়ীভাবে বিদেশিতে পরিণত হবে । ইসরায়েলের মুসলিম এবং খ্রীষ্টানদের অধিকার ও মর্যাদা বলে কিছু থাকবেনা । ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে দুই রাষ্ট্রের সমাধান সংকটের মুখে পড়বে ।
সমালোচকদের ভাষ্য, আরবি ভাষার যে রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা ছিল নতুন আইনে তা হরণ করা হয়েছে । আরবি ভাষাকে বিশেষ স্থান দেয়ার মত একটা ফালতু অবস্থান দেয়া হয়েছে। পক্ষান্তরে হিব্রু ভাষাকে রাষ্ট্র ভাষার মর্যাদা দেয়া হয়েছে । আরও ভয়ঙ্কর হল ইসরায়েলকে নতুন আইনে ইহুদিদের প্রাকৃতিক ভূমি বলা হয়েছে । অথচ আরব খ্রীষ্টান ও মুসলমানদের যাবতীয় অধিকার ও ঐতিহ্য মুছে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে ।
ইসরায়েলের নেসেট সদস্য যিনি নতুন আইনের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন তার ভাষ্য,নতুন আইন আরবদের বিরুদ্ধে বর্ণবাদি আচরণ প্রয়োগ ও অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখ-ে অবৈধ বসতি গড়াকে বৈধতা দেবে । অবৈধ বসতিকারিরা আইনগত বৈধতা পাবে এবং ফিলিস্তিনি রাষ্ট্র গঠন সুদূর পরাহত হবে ।
বেরী ট্রাচেনবার্গ যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েক ফরেস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ইহুদি ইতিহাস বিষয়ক বিভাগীয় প্রধান । তিনি বলেন,বিংশ শতাব্দীতে ইহুদিদের যে অবস্থাটা ছিল নতুন আইন সেই কথাই স্মরণ করিয়ে দেবে । আরেক ভাষ্যকার বলেছেন, অধিকাংশ ইউরোপিয় ইহুদিদের অনাকাঙ্খিত মনে করে । আলজাজিরা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ