প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধামরাইয়ে স্কুল ছাত্রীকে ইয়াবা খাইয়ে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেফতার

রাসেল হোসেন, ধামরাই: ঢাকার ধামরাইয়ে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ইয়াবা ট্যাবলেট খাইয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি ধর্ষক দেবাশীষ চৌধুরীকে গ্রেফতার করেছে ধামরাই থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার(১৯ জুলাই) দিন গত রাতে মানিকগঞ্জের পৌর এলাকার একটি ভাড়া বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য সাভারের গাজীরচট এলাকার পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী তার বান্ধবী ধামরাইয়ের কেলিয়া গ্রামের রিপন হোসেনের মেয়ে রিমা আক্তারের বাড়িতে বেড়াতে যান। এরপর রিমা তার বন্ধু ধামরাইয়ের গাইরাকুল গ্রামের মৃত অধীর চৌধুরীর ছেলে দেবাশীষ চৌধুরীর কাছে নিয়ে যায়। এরপর দেবাশীষ তার মালিকানাধীন ধামরাইয়ের আইঙ্গণ এলাকার মেসার্স অর্ণব এন্টারপ্রাইজ নামে একটি গুদাম ঘরে আটকে রেখে ওই স্কুলছাত্রীকে ইয়াবা ট্যাবলেট খাইয়ে রাতভর ধর্ষণ করে।
স্বজনরা খবর পেয়ে ধর্ষিতাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ওই ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এরপর ধামরাই থানা পুলিশ ধর্ষণের অভিযোগে রিমা আক্তারকে আটক করে। তবে ধর্ষক দেবাশীষ চৌধুরী ঘটনার পর থেকে পলাতক ছিল।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ধামরাই থানার উপ- পরিদর্শক এসআই কামাল হোসেন জানান, মামলা হওয়ার পরই ধর্ষণে সহযোগিতা করার অপরাধে ওই ধর্ষিতার বান্ধবী রিমা আক্তারকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করি।তবে মামলার পর থেকে মূল ধর্ষক দেবাশীষ পলাতক ছিল। গত বৃহস্পতিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি দেবাশীষ মানিকগঞ্জন পৌর এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে অবস্থান করছে এর পরই বৃহস্পতিবার রাতেই ওই এলাকায় অভিজান চালিয়ে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি ধর্ষক দেবাশীষ চৌদ্দুরীকে গ্রেফতার করি। দেবাশীষকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ