প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নিজ দোকানে নিজের লাশ, প্রমাণ রাখেনি খুনি

তপু সরকার হারুন, শেরপুর : শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলা সংলগ্ন ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার পাবিয়াজুড়ি বাজারের এক ব্যবসায়ীকে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে শ্বাসরোধে হত্যার পর দোকান লুট করেছে দুর্বৃত্তরা। একইসঙ্গে প্রমাণ নষ্ট করতে দোকানে লাগানো সিসি ক্যামেরা সেটও নিয়ে গেছে ওই চক্রটি। বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) ভোর রাতে এ ঘটনা ঘটে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পাবিয়াজুড়ি বাজারের নাহিদ ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী ব্যবসায়ী নিজাম উদ্দিন (৩৮) বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দোকানের ভেতরেই ঘুমিয়ে পড়েন।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে একই গ্রামের গিয়াস উদ্দিন (৭০) বিকাশের টাকা উঠাতে নিজাম উদ্দিনের দোকানে গেলে বাইরে থেকে ডাকাডাকি করে তাকে পাননি। ফলে নিজাম উদ্দিনের বাড়িতে গেলে বাড়ির লোকজন দোকানে খোঁজ নেওয়ার কথা বলেন। পুনরায় দোকানে গিয়ে উঁকি দিলে নিজাম উদ্দিনের নিথর দেহ মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন গিয়াস উদ্দিন। এসময় প্রতিবেশি দোকানদার ও নিজাম উদ্দিনের চাচাতো ভাই খোরশেদ আলমকে ডেকে আনেন তিনি। পরে খোরশেদ আলম দোকানের ঝাঁপ খোলা দেখে ভিতরে প্রবেশ করেন এবং নিজাম উদ্দিনের লাশ মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তাদের ডাকাডাকিতে আশপাশের লোকজন এবং স্বজনেরা ছুটে আসে।

খবর পেয়ে সকাল দশটার দিকে হালুয়াঘাট থানা পুলিশ ও পুলিশ সুপার হালুয়াঘাট-ধোবাউরা সার্কেল আলমগীর হোসেন ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। নিহত নিজাম উদ্দিনের গলায় প্লাস্টিকের সুতায় তৈরি রশি দিয়ে শ্বাসরোধ করার চিহ্ন রয়েছে এবং দোকানে থাকা স্টিলের আলমিরা ভাঙ্গা অবস্থায় পাওয়া গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারণা, সংঘবদ্ধ চোরচক্র পূর্ব পরিকল্পিতভাবে নিজামকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর দোকানে লুটপাট চালায় এবং এসবের প্রমাণ নষ্ট করতে সিসি ক্যামেরা খুলে সেটসহ নিয়ে যায়। তবে এ বিষয়ে এখনও কোন ক্লু পায়নি পুলিশ। লাশ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত