প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চামড়া শিল্প নগরী স্থানান্তরের বছর পেরিয়ে গেলেও রয়ে গেছে নানা অব্যবস্থাপনা

সাজিয়া আক্তার : চামড়া শিল্প নগরীর স্থানান্তরের ১ বছর পেরিয়ে গেলেও রয়ে গেছে নানা অব্যবস্থাপনা। প্রতিদিন বিপুল পরিমান বজ্র ফেলা হচ্ছে যেখানে-সেখানে। রাসায়নিকযুক্ত বিষাক্ত পানি সরাসরি মিশছে ধলেশ্বরীতে। আর বেহাল দশা শিল্প নগরীর রাস্তা-ঘাটেরও। বিশ্লেষকদের মতে এই প্রকল্প সঠিকভাবে পরিচালিত হলে চামড়া খাতে আয় বাড়ানো যেত কয়েকগুণ।

এক যুগেরও বেশি সময় আইনি জটিলতা নিয়ে গত বছরের এপ্রিলে রাজধানীর হারীবাগ ট্যানারি আনুষ্ঠানিকভাবে স্থানান্তর করা হয় সাভারের হেমায়েতপুরে। প্রায় ২শ একর জায়গার উপর গড়ে উঠা চামড়া শিল্প নগরীতে জায়গা বরাদ্দ আছে ১৫৫টি ট্যানারি শিল্প কারখানার। বাংলাদেশ ট্যানারি অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য মতে এরই মধ্যে উৎপাদন কাজ শুরু করতে পেরেছে ১১১ টি। তবে স্থানান্তরের বছর পেরোলেও এই শিল্প নগরী জুড়েই কেবল অব্যবস্থাপনা।

যেহেতু শতাধিক কারখানা ইতিমধ্যেই উৎপাদনের কাজ শুরু করেছে সেহেতু প্রতিদিনেই বিপুল পরিমান সলিডস্টেট বা শুকনো বজ্র উৎপণ্য হচ্ছে। যে বজ্রগুলো একটি নির্দিষ্ট জায়গায় সুষ্ঠুভাবে ফেলার কথা থাকলেও এখানে সম্পূর্ণ ভিন্ন চিত্র। রয়েছে নানা রকম অব্যবস্থাপনা।

ট্যানারি বজ্র ফেলা দৃশ্য নিত্যকার ব্যাপার, স্থান হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে ধলেশ্বরী নদীর পাশের জায়গা। বিটিএর তথ্য মতে এই শিল্প এলাকায় প্রতিদিন বজ্র উৎপন্ন হয় ২৫ থেকে ৩০টন। কোনো রকম নজরদারি এবং ব্যবস্থাপনা না থাকায় তা ফেলা হচ্ছে যেখানে-সেখানে। যা প্রতিনিয়তই দূষিত করছে এখানকার পরিবেশ। আর বৃষ্টি হলে দেখা দেয় বেহাল দশা।

বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শাহীন আহমেদ বলেন, খোলা জায়গায় ময়লা ফেলার কারণে পরিবেশ দূষণ হচ্ছে। এই বজ্র গুলো সরাসরি নদীতে ফেলা হচ্ছে, তাতে নদীর পানি দূষিত হচ্ছে। সলিডস্টেট ম্যানেজমেন্ট যদি দ্রুত না করা হয় তাহলে একটা বড় সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

সরেজমিনে দেখা যায় ট্যানারির কেমিক্যালযুক্ত বিষাক্ত পানি অনবরত মিশছে ধলেশ্বরীতে। পুরোপুরিভাবে সিএটিবি কাজ শুরু না করায় এই পানি দূষিত করছে নদীর পানিকে।

রপ্তানির অন্যতম সম্ভাবনা এ খাতের আয় বাড়ানোর স্বপ্ন নিয়ে ট্যানারি স্থানান্তর করা হলেও তার বাস্তবায়ন নিয়ে অনেকটাই যেনো হতাশ এ খাতের উদ্যোক্তারা।

সুষ্টু ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে সাভার চামড়া শিল্প নগরী পরিচালিত হলে এ খাতের ব্যাপক প্রসার ঘটবে বলে অভিমত বিশ্লেষকদের।

সূত্র : চ্যানেল ২৪ টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত