প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘বাংলাদেশ ব্যাংকের উপর থেকে মানুষের আস্থা কমে যাবে’

আশিক রহমান : অনিয়মের ঘটনা ঘটতে থাকলে বাংলাদেশ ব্যাংকের উপর থেকে মানুষের আস্থা কমে যাবে বলে মনে করেন গবেষক ও অর্থনীতিবিদেরা। তাদের মতে, বাংলাদেশর ব্যাংকের অদক্ষতার কারণে রিজার্ভ চুরি থেকে স্বর্ণ মিশ্র ধাতু হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক দেশের ব্যাংকগুলোকে নিয়ন্ত্রণে যথাযথ দায়িত্ব পালন করেছে কিনা সে সম্পর্কে মানুষের খুব নেতিবাচক ধারণা হয়ে গেছে। কারণ ব্যাংকগুলোতে যে এত চুরি-চামারি হয়, তা দেখার দায়িত্ব বাংলাদেশ ব্যাংকের। বাংলাদেশ ব্যাংক কি তা পালন করছে? রিজার্ভ বা সোনা রক্ষা করতে পারছে কি কেন্দ্রীয় ব্যাংক? এমন প্রশ্ন রেখে দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে যথাযথ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণেরও তাগিদ দিয়েছেন তারা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ গণমাধ্যমকে বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকে আমি কাজ করেছি। আমি জানি, এসব ক্ষেত্রে দায়িত্বে থাকেন হাতে গোনা কয়েকজন। পরিদর্শন প্রতিবেদনে যে তথ্য এসেছে, সে তথ্য থেকে ঘটনার সময় যারা দায়িত্বে ছিলেন তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে সব বের হয়ে আসবে। ভল্টের মতো উচ্চ গুরুত্বের জায়গায় এমন অনিয়মকে গুরুত্ব না দিলে আরও বড় ঘটনা ঘটতে পারে।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. এ বি মির্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের ঘটনা ঘটতে থাকলে স্বভাবতই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উপরে লোকজনের আস্থা কমে যাবে। এমনটি কারও কাম্য নয়। বিচার ব্যবস্থায় যেমন সুপ্রিম কোর্ট হাইয়েস্ট অথরিটি, তেমনি ফিন্যান্সিয়াল সেক্টরে কেন্দ্রীয় ব্যাংকও হাইয়েস্ট অথরিটি। সেই অথরিটির উপর যদি মানুষের কনফিডেন্টস কমে যায়, আস্থাহীন হয়ে পড়েন তারা তখন কী হবে?

গবেষক ও সাংবাদিক আফসান চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের দক্ষতার অভাব তো নিশ্চয়ই ্আছে। রিজার্ভ চুরি দক্ষতার অভাব, ব্যাংকগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারা তাদের দক্ষমতার অভাব, শুল্ক গোয়েন্দাদের যদি তারা না বোঝাতে পেরে থাকে তাহলে সেখানেও দক্ষতার অভাব। বাংলাদেশ ব্যাংকের দায়িত্ব হচ্ছে পুরো অর্থনৈতিক কাঠামো ঠিক রাখা। তারা কি অর্থনৈতিক কাঠামো ঠিক রাখতে পেরেছে?

যদিও অর্থপ্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান গণমাধ্যমকে বলেছেন, কোনো স্বর্ণ বাইরে যায়নি। বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রাখা স্বর্ণ নিয়ে অনিয়মের বিষয়ে যোগাযোগের ঘাটতিতেই এই সংকট। তবে বিষয়টি আমরা মোটেও ছোট করে দেখছি না। পর্যলোচনা করে কারও বিরুদ্ধে গাফিলতির প্রমাণ পাওয়া গেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ