প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমি চাইলে অনেক কিছুই করতে পারি

ডেস্ক রিপোর্ট  : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ‘আমি চাইলে অনেক কিছুই করতে পারি, কিন্তু করি না। আমি শান্তিপ্রিয় মানুষ। শান্তির মাধ্যমেই সবকিছু সমাধান করতে চাই। আশা করি, শহরের মানুষ আপনারা সোচ্চার হবেন। আপনাদের ফুটপাথ দিয়ে আপনারা হাঁটবেন। নাগরিক কমিটি আছেন, সাংস্কৃতিক লোকজন আছেন এবং সাধারণ মানুষ মিলে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন।’

১৮ই জুলাই সকাল ১১টায় নগরভবনে আয়োজিত ‘জনতার মুখোমুখি সিটি করপোরেশন’ অনুষ্ঠানে প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে তিনি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ৭১৫ কোটি ৫১ লাখ ২১ হাজার ৩৭৭ টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এফএম এহতেশামূল হক, প্যানেল মেয়র-১ আফরোজা হাসান বিভা প্রমুখ।

নগরীর ফুটপাথ দখলের ব্যাপারে মেয়র আইভী বলেন, ‘ফুটপাথ দখলের ব্যাপারটি দুঃখজনক ঘটনা। আমি এর পুনরাবৃত্তি চাই না। তারপরেও কিছু কথা বলতে হয়। যেভাবে আমার লোকজনকে ঢিল খেয়ে মাথা ফাটাতে হয়েছে। এমন কেউ নেই যে আমার সঙ্গে সেদিন গিয়ে আহত হননি। সাংবাদিক ভাইদের সুবাদে আমরা পরবর্তীতে ইউটিউবে দেখতে পেয়েছি, কীভাবে আমি সেদিন পড়ে গিয়েছিলাম। সেদিন কার কী ভূমিকা ছিল সবাই দেখেছি আর বলার দরকার নেই। শুধু এতটুকু বলবো, নারায়ণগঞ্জবাসী নয়, সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের দোয়ার সুবাধে আমি সেদিন সেখান থেকে বেঁচে ফিরে এসেছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের নিয়ত কিন্তু একদম সহি ছিল। আমরা ফুটপাথ দিয়ে শান্তিমতো হেঁটে যাবো। ফুটপাথে মানুষের হাঁটার অধিকার আছে, এটাই ছিল আমাদের মূল লক্ষ্য। কিন্তু সেখানে হাঁটা তো দূরের কথা, আমাদের উপর যেভাবে আক্রমণ হলো সেটা খুবই ন্যক্কারজনক ও দুঃখজনক ঘটনা। এবং যারা আমাদের উপর হামলা করলো তারাই আবার বুক ফুলিয়ে শহরের মধ্যে হাঁটে।’

শহরের যানজট প্রসঙ্গে উপস্থিত সকলের উদ্দেশে আইভী বলেন, ‘একবার চিন্তা করে দেখেন তো, চাষাঢ়ার মোড়ে কেন যানজট হয়? এমপি মহোদয়ের নাম দিয়া অবৈধ বাসস্ট্যান্ড, সিএনজি স্ট্যান্ড, লেগুনা স্ট্যান্ড তৈরি করা হয়েছে। এমপি মহোদয়ের নাম দিয়ে চাষাঢ়া-মুন্সীগঞ্জ লেগুনা ছাড়া হয়েছে। এ সমস্ত কারণে কিন্তু চাষাঢ়ায় যানজট হচ্ছে। আর শহরের কেন্দ্র চাষাঢ়ায় যানজট হবার কারণে সারা শহরে যানজট হচ্ছে।’

আইভী আরো বলেন, নগরের উন্নয়নে বিভিন্ন পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। ধীরে ধীরে সব দৃশ্যমান হবে। ইতোমধ্যে জালকুড়িতে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের একটি প্রকল্প চুক্তি হয়েছে। জমি বুঝিয়ে দেয়ার পরই কাজ শুরু হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে নগরীতে পলিথিনের সমস্যা থাকবে না।

খাল দখলমুক্ত করা নিয়ে আইভী বলেন, ইতোমধ্যে ১৬৬ কোটি টাকার প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে। খালগুলো দখলমুক্ত করে পুনঃখনন করে সৌন্দর্যমণ্ডিত করা হবে।

শহীদ মিনারের নিরাপত্তা নিয়ে তিনি বলেন, প্রভাবশালী লোকের কারণে শহীদ মিনারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যাবে কিনা এ ব্যাপারে ভয় হয়। কারণ সাংস্কৃতিক কর্মীদের ওপর কয়েকবারই হামলা করা হয়েছে। আমি একজন দারোয়ান রাখার চেষ্টা করবো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হোসনে আরা বাবলী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এহতেশামুল হক, প্যানেল মেয়র আফরোজা হাসান বিভা প্রমুখ। এ ছাড়াও বাজেট অনুষ্ঠানের উপস্থিত ছিলেন- নাসিকের কাউন্সিলর, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।  মানবজমিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত