Skip to main content

মেসি-রোনালদোকে ছাড়াই রাশিয়া বিশ্বকাপের সেরা একাদশ ঘোষণা ফিফার

আক্তারুজ্জামান : সারাবিশ্বের বাছাইকৃত ৩২টি দেশের অংশগ্রহনে দীর্ঘ একমাসের যুদ্ধ শেষ হয়েছে দু’দিন আগেই। হাসি-কান্নার নানা পর্ব পেরিয়ে ফুটবল বিশ্বকাপের একুশতম আসরের শিরোপা ঘরে তুলেছে ফ্রান্স। আগামী চার বছর ফুটবল বিশ্বের রাজত্ব থাকবে লস ব্লুজদের হাতে। এরপর ২০২২ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বরে আবারো লড়াই হবে শিরোপা দাবীদারদের। যারা হবে পরবর্তী চার বছরের সিংহাসনের মালিক। রাশিয়া বিশ্বকাপে ফুটবল বিশ্ব অনেক তারকাকে পেয়েছে। তেমনভাবে ছিটকে যেতে দেখেছে অনেক বড় তারকাকেও। আর ভালো-মন্দেও সংমিশ্রণে সফলভাবেই শেষ হয়েছে একুশতম আসর। ফুটবল বিশ্বকাপের অন্যান্য আসরের মতো এবারও বিশ্বকাপে খেলোয়াড়দের পারফর্মেন্সের ওপর ভিত্তি করে দল ঘোষণা করেছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। যার নাম ‘ওয়ার্ল্ড কাপ ২০১৮ টিম অব দ্যা টুর্নামেন্ট’। তবে সদ্য ঘোষিত এই একাদশ নিয়ে সামজিক মাধ্যমে ইতোমধ্যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে ফুটবলভক্তদের মাঝে। বিতর্কের কারণ হিসেবে সামনে আসছে অনেকগুলো বিষয়। যেমন, এই একাদশে জায়গা পাননি টুর্নামেন্টের সেরা গোলদাতা খেলোয়াড় হ্যারি কেন। অন্যদিকে এবার সেরা গোলরক্ষক গোল্ডেন গ্লাভস জয়ী বেলজিয়ামের থিবো কোর্তোয়াও প্রকাশিত একাদশে জায়গা পাননি। টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া ৩২টি দলের মধ্যে মাত্র ৫টি দলের খেলোয়াড়রা ‘ওয়ার্ল্ড কাপ টিম’-এ ১১ জনের তালিকায় স্থান পেয়েছেন। তবে এই দলে সুযোগ পাননি বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুই তারকা খেলোয়াড় আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি ও পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অথচ এ দু’জনের কাছেই রয়েছে বিশ্ব সেরা ফুটবলারের খেতাব ব্যালন ডি’অর। গত দশ বছরের সেরা ফুটবলারের খেতাব পাঁচবার করে ভাগ করে নিয়েছেন এই দুই ফুটবল মহাতারকা। নামের প্রতি রোনালদো কিছুটা সুবিচার করলেও একেবারে বলা চলে নিষ্প্রভ ছিলেন লিওনেল মেসি। তালিকায় স্থান পাওয়া সবোর্চ্চ চারজন বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্সের। দুইজন করে রয়েছেন ব্রাজিল, ক্রোয়েশিয়া ও ইংল্যান্ডের। অবশিষ্ট একজন বেলজিয়ামের। ৪-২-৩-১ ফরম্যাটে সাজানো ফিফা বিশ্বকাপ একাদশে আছেন: হুগো লরিস (ফ্রান্স), উইরেন ট্রিপার (ইংল্যান্ড), রাফায়েল ভারানে (ফ্রান্স), ডেজান লভরেন (ক্রোয়েশিয়া), অ্যাশলে ইয়ং (ইংল্যান্ড), পাওলিনহো (ব্রাজিল), লুকা মদ্রিচ (ক্রোয়েশিয়া), নেইমার (ব্রাজিল), কিলিয়েন এমবাপ্পে (ফ্রান্স), অ্যান্তোনি গ্রিজম্যান (ফ্রান্স) ও হ্যাজার্ড (বেলজিয়াম)। ফিফাডটকম