প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জিম্বাবুয়েকে অসহায় করে সিরিজ জিতল পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক : আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জিম্বাবুয়ের দুর্দশা কাটছেই না। ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে একেবারে পাত্তায় পায়নি। এরপর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একদিনের ওয়ানডে সিরিজেও ধরাশায়ী মাসাকাদজারা। আজ তৃতীয় ওয়ানডেতে মাত্র ৬৭ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরেছে জিম্বাবুয়ে। আর এই জয়ে দুই ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জিতল পাকিস্তান। বুলাওয়েতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ২৫.১ ওভারেই ৬৭ রানে অলআউট হয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। জবাবে ৯ উইকেট ও ২৪১ বল হাতে রেখে জয় নিশ্চত করে পাকিস্তান।

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বল বাকি রেখে এটিই পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় জয়। ১৯৯০ সালে শারজাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২০৬ বল বাকি রেখে জয় ছিল আগের রেকর্ড। পরপর দুই ম্যাচে ৯ উইকেটের জয় পেল পাকিস্তান। পাঁচ ম্যাচ সিরিজে সফরকারীরা এগিয়ে গেল ৩-০ ব্যবধানে।

প্রথম ম্যাচে ১০৭ রানে অলআউট হয়ে ২০১ রানে ম্যাচ হেরেছিল জিম্বাবুয়ে। দ্বিতীয় ম্যাচে তারা করেছিল ১৯৪। আজ টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছিল স্বাগতিকরা। তবে পাকিস্তানের পেসারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা। ১৫ ওভারের মধ্যে ৪৩ রানেই হারিয়ে ফেলে ৭ উইকেট। সেখান থেকে নিজেদের সপ্তম সর্বনিম্ন ৬৭ রানেই শেষ হয় যায় তাদের ইনিংস।

ইনিংসে দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন তিনজন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ১৬ রান চামু চিবাবার। দুই মাসাকাদজা ভাই- হ্যামিল্টন ও ওয়েলিংটন করেন সমান ১০ রান। ২২ রানে ৫ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের সেরা বোলার ফাহিম আশরাফ। ক্যারিয়ারে এই প্রথম পাঁচ উইকেট পেলেন ম্যাচসেরা হওয়া ফাহিম। জুনাইদ খান ২টি, উসমান, ইয়াসির ও শাদাব নেন একটি করে উইকেট।

৬৮ রানের ছোট্ট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম বলেই ইমাম-উল-হককে হারিয়েছিল পাকিস্তান। তবে ফখর জামানের ২৪ বলে ৮ চারে ৪৩ রানের ঝোড়ো ইনিংসে সহজেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সফরকারীরা। ফখরের সঙ্গে ১৯ রানে অপরাজিত ছিলেন বাবর আজম। আগামী শুক্রবার বুলাওয়েতে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত