Skip to main content

ইসরাইল ফিলিস্তিনের সাথে যা করছে তা লজ্জার : ম্যারাডোনা

স্পোর্টস ডেস্ক: রাশিয়ায় ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে আর্জেন্টাইন ফুটবল লিজেন্ড ডিয়াগো ম্যারাডোনার বলা- ‘আমি মনে প্রাণে একজন ফিলিস্তিনি’ বাক্যটি সারাবিশ্বের মুসলমানদের হৃদয় স্পর্শ করেছে। এর আগে ২০১৪ সালেও ম্যারাডোনা বলেছিলেন, ইসরাইল ফিলিস্তিনের সাথে যা করছে তা লজ্জার। ২০১২ সালে ম্যারাডোন বলেছিলেন, আমি ফিলিস্তিনের এক নম্বর সমর্থক। আমি তাদের সম্মান করি, তাদের প্রতি সহানুভূতি জানাই। এবারে আর্জেন্টিনার ফুটবল কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনা ফিলিস্তিনিদের ন্যায়সঙ্গত অধিকারের প্রতি তার দৃঢ় সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেছেন মাত্র। ফুটবল জগতে কিংবদন্তি হিসেবে পরিচিত ম্যারাডোনা দীর্ঘ সময় থেকেই ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আসছেন। ফিলিস্তিন একদিন চূড়ান্তভাবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি লাভ করে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে জানান ম্যারাডোনা। নিজের ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে ম্যারাডোনা লিখেন, এই লোকটি ফিলিস্তিনে শান্তি চায়। জনাব আব্বাস, আপনার নিজের একটি পূর্ণাঙ্গ দেশ আছে, আপনার কিছু অধিকারও রয়েছে। গত রোববার রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত হয় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল ম্যাচ। আর সেই ম্যাচটি দেখার জন্য রাশিয়ায় উপস্থিত ছিলেন আর্জেন্টাইন ফুটবল লিজেন্ড ডিয়াগো ম্যারাডোনা। এদিকে এই ম্যাচটি দেখতে রাশিয়ায় ছিলেন ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। আর সেখানেই এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন ম্যারাডোনা ও প্রেসিডেন্ট আব্বাস। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে মস্কো গেছেন প্রেসিডেন্ট আব্বাস। বিভিন্ন দ্বিপক্ষীয় এবং আঞ্চলিক ইস্যু নিয়ে দুই নেতা বৈঠকে মিলিত হবেন বলে কথা রয়েছে। বিশ্বকাপের শেষ শো’তে ম্যারাডোনা বলেন, আমাদের কেনা যায় না, আমরা পায়ে-হাতে-মনে বামপন্থী রাজনীতির সমর্থক। একথা মানুষ জানে যে আমরা সত্য কথা বলি এবং সাম্য চাই। এর আগে ম্যারাডোনা প্রকাশ্যেই ভেনিজুয়েলা, কিউবা ও ইরানের নেতাদের প্রশংসা করেন। ২০০৭ সালের ডিসেম্বরে আর্জেন্টিনায় নিযুক্ত ইরানি কূটনীতিক মহসিন বহরভন্দকে তিনি বলেন, আমি ইতোমধ্যে ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট হুগো শ্যাভেজ(তৎকালীন) এবং কিউবার নেতা ফিদেল ক্যাস্ট্রোর(তৎকালীন) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছি। এখন আমি আপনাদের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চাই। নয়াদিগন্ত