প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হজের বদলি কোটা বাড়ানোর দাবিতে মুখোমুখি হজ এজেন্সি মালিক এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়

সাজিয়া আক্তার : হজ যাত্রা নিয়ে তেমন কোনো ভোগান্তি না থাকলেও বদলি কোটা বৃদ্ধির দাবিতে অনেকটা মুখোমুখি অবস্থানে হজ এজেন্সি মালিক এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়। হাজিদের যাত্রা নিশ্চিত করতে এজেন্সি গুলোকে যখন দ্রুত বিমানের টিকিট এবং খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করার তাগিদ দিচ্ছে মন্ত্রণালয় ঠিক তখনেই এজেন্সি গুলোর দাবি করছে বদলি কোটা বাড়ানোর। তবে আপাতত এই ধরনের কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার সচিবালয়ে এনিয়ে দু’পক্ষের বৈঠকেও আসেনি কোনো সমাধান।

১ লাখ ২৭ হাজার মানুষের হজ যাত্রা। নির্বিঘœ করতে সরকারের নেওয়া নানা উদ্যোগে এখন পর্যন্ত সন্তুষ্ট হজ যাত্রীরা। তবে জট বেধেছে বিমানের অগ্রিম টিকিট কাটা এবং সৌদিদের হাজিদের থাকা খাওয়া ব্যবস্থাপনা নিয়ে। আগে থেকেই সৌদি সরকার ঘোষণা দিয়েছে এবছর কোনো ভাবেই অতিরিক্ত ফ্লাইট বাড়ানো হবে না। অথচ ২৭ জুলাই থেকে ২ আগস্ট পর্যন্ত বিমানের প্রায় ৭ হাজার টিকিট এখনো কাটেনি এজেন্সি গুলো। এসব বিষয় নিয়ে হাবের ৫২৮টি এজন্সির মধ্যে ১৪৪ টিকে তলব করে মন্ত্রণালয়। সোমবার ৫৬ টি এজেন্সির মধ্যে ৪৩ টি আর মঙ্গলবার দুই দফায় ৮৮ টি এজেন্সির মধ্যে হাজির হয় অর্ধ শতাধিক এজেন্সি।

বৈঠকে এই বিষয় গুলোর মধ্যে নিজেদের অগ্রগতি মন্ত্রণালকে অবহিত করার পাশাপাশি এজেন্সি গুলোর দাবি সরকার নির্ধারিত বদলি কোটা ৪ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২০ শতাংশ করার।

হাব সভাপতি আব্দুস সোবহান ভুঁইয়া বলেন, এজেন্সি গুলোর দাবি যদি অল্প সময়ের মধ্যে যদি রিপ্লেসমেন্টের ব্যাপারটা সমাধান করে দেন তাহলে আগামী ২৪ ঘন্টার ভিতরে টিকিটের বেকাপটা আছে সেটা সংশোধন হয়ে যাবে।

অভিযোগ রয়েছে অনেক এজেন্সি হজ যাত্রির নামে ভূয়া রেজিস্ট্রি করে থাকে। এখন তারা মারা গেছেন কিংবা অসুস্থ্য দাবি করে অন্যদের পাঠানো চেষ্টা করতে বদলি কোটার দাবি করছে। কিন্তু আপাতত তা মানতে নারাজ মন্ত্রণালয়।

এজেন্সি গুলোর দাবি গত বছরের শুরুতে বদলি কোটা ৪ শতাংশ থাকলেও পরে তা বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়। এবছরও সেরকম কোনো সুযোগ না দিলে সাড়ে ১৩ হাজার হজ যাত্রী যেতে পারবেন না। শেষ মুহূর্তে কোটা বাড়ালে অনেকে বাণিজ্য করার সুযোগ পান।

এবছর কোটা না বাড়ানোর এখন পর্যন্ত নিজেদের অবস্থানে অটল রয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

সূত্র : সময় টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত