প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৯০ মিনিটের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে ট্রাম্প-পুতিন

লিহান লিমা: ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কির প্রেসিডেন্টের প্রাসাদে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। আশা করা হচ্ছে, দুই নেতার ৯০ মিনিটের এই বৈঠকে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক, বাণিজ্য, সিরিয়া, উত্তর কোরিয়া ও ক্রিমিয়া ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে।

ট্রাম্প-পুতিনের বৈঠক উপলক্ষ্যে নানা বিলবোর্ডে সাজে ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কি। মুক্ত গণমাধ্যমের প্রয়োজনিতা নিয়ে নানা বিলবোর্ড টাঙ্গানো হয় রাস্তার দুধারে।

বৈঠকের আগে পুতিনের সঙ্গে প্রাথমিক কথোপকথনে ট্রাম্প প্রথমেই বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য তাকে ধন্যবাদ দেন। ট্রাম্প বলেন, ‘বৈঠকে আমরা বাণিজ্য, প্রতিরক্ষা, পরমাণু অস্ত্র ও চীন, এই সব বিষয়েই আলোচনা করব। আমি মনে করি এটি দুই দেশের সম্পর্কন্নোয়নের সেরা সুযোগ। বিশ্ব আমাদের একসঙ্গে দেখতে চায়। আমাদের কাছে ৯০ ভাগ পরমাণু অস্ত্র আছে যদিও এটি ভাল নয়, খারাপ বিষয়।’ অন্যদিকে পুতিন ট্রাম্পকে বলেন, ‘টেলিফোনে আমাদের নিয়মিত যোগাােগ ছিল। কিন্তু তা ছিল ব্যবসায়িক আলোচনার মত এবং আমাদের সরাসরি কথা বলা প্রয়োজন। সময় আমাদের আলোচনার টেবিলে এনেছে। ফিনল্যান্ডে আপনার সঙ্গে দেখা করতে পেরে আমি আনন্দিত।’

এদিকে ট্রাম্প-পুতিন বৈঠক চলাকালে আলাদা বৈঠকে বসেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। পুতিনের সঙ্গে ট্রাম্পের একা বৈঠক সম্পর্কে মার্কিন প্রশাসন জানায়, প্রথমত, ট্রাম্প ব্যক্তিগতভাবে পুতিনের সঙ্গে সম্পর্কন্নোয়নে আগ্রহী, যা তিনি সিঙ্গাপুরে কিম জং উনের সঙ্গেও করেছেন। দ্বিতীয়ত, তিনি চাননা দুই নেতার বৈঠকের কোন সংবেদনশীল ইস্যু ফাঁস হোক। তৃতীয়ত, ট্রাম্পের সহযোগিরা রাশিয়ার প্রতি কঠোরতা অবলম্বনে বিশ্বাসী। ট্রাম্প আশঙ্কা করছেন তারা পুতিনের সঙ্গে তার আলোচনায় বাধা দিতে পারেন।

পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের আগে স্কটল্যান্ডের গলফ ক্লাবে দেয়া এক সাক্ষাতকারে রাশিয়া, চীন ও ইউরোপিয় ইউনিয়নকে শত্রু বলে মন্তব্য করেন ট্রাম্প। এরপরই টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘পূর্ববর্তী প্রশাসনের বোকামির জন্য রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক নষ্ট হয়েছে।’ ট্রাম্প-পুতিন সম্মেলন কেন্দ্রে আসার আগে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বলা হয়, ‘ট্রাম্প ঠিক বলেছেন, ওয়াশিংটনের বোকামি ও ডাইনী খোঁজার জন্য দু দেশের সম্পর্ক নষ্ট হয়েছে। এয়ার ফোর্স ওয়ানে ব্রিটিশ সাংবাদিককে দেয়া সাক্ষাতকারে ট্রাম্প বলেন, ‘পুতিনের সঙ্গে বৈঠক একটি ভাল বিষয়।’ সিএনএন জানায়, প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে মোট ১১ বার পুতিনের প্রশংসা করেন ট্রাম্প। সিএনএন, ডেইলি মেইল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত