প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইংলিশ মিডিয়াকে একেবারে ধুয়ে দিলেন ক্রোয়েশিয়ার অধিনায়ক

এম এ রাশেদ : ইংলিশ সংবাদ মাধ্যমকে অন্যের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার পরামর্শ দিলেন ক্রোয়েশিয়ার সবচেয়ে বড় তারকা লুকা মড্রিচ। আসলে রিয়াল মিডফিল্ডার একরকম ধুয়ে দিয়েছেন ইংলিশ সংবাদ মাধ্যমকে। বুধবার ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে ফাইনালের টিকেট কেটেছে ক্রোয়েশিয়া। কিন্ত এম্যাচের আগে ক্রোয়েটদের অবজ্ঞা করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন মড্রিচ। আর সেই অবজ্ঞাই তাদের ইংলিশদের হারাতে আরো দৃঢ প্রত্যয়ী করেছে বলে জানিয়েছেন ক্রোয়েশিয়া অধিনায়ক।
সেমির আগে নট আউট পর্বে দুটি ম্যাচই ক্রোয়েশিয়া জেতে টাইব্রেকারে। শেষ ষোলোতে ডেনমার্ক ও কোয়ার্টার ফাইনালে স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে জয় তাদের। বুধবারের ফাইনালের আগে ইংলিশ মিডিয়া প্রচার করছিল এম্যাচে জিততে হলে অনেক বেশি কষ্ট করতে হবে ক্রোয়েটদের। টানা দুই ম্যাচ টাইব্রেকারে যাওয়ায় ক্রোয়েটরা ক্লান্ত থাকবে বলে তুলে ধরছিল ইংলিশ মিডিয়া।
মড্রিচ বলছেন ইংলিশ মিডিয়ার এই কথাগুলোই তাদের অনেক বেশি প্রত্যয়ী করে তোলে। এবং এই কথাগুলোকে ভুল প্রমাণ করতে ব্যকুল করে তোলে, ‘তাদের সাংবাদিক এবং প-িতরা টেলিভিশনে এম্যাচের আগে আমাদের ক্লান্ত হয়ে পড়া নিয়ে অনেক কথা বলেছিল। তাদের এই কথাগুলো তাদেরকে ভুল প্রমাণ করার জন্য আমাদের আগ্রহী করে তোলে। তাদের অন্যের প্রতি আরো বেশি ন¤্র হতে হবে এবং সম্মান দেখাতে হবে।’
ডেনমার্ক ও রাশিয়ার বিপক্ষে প্রথমে পিছিয়ে পড়েও শেষ হাসি হাসে ক্রেয়েশিয়া। ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও সেই একই চিত্র। তবে এম্যাচটি টাইব্রেকারে গড়ায়নি। অতিরিক্ত সময়েই জয় তুলে নিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। মড্রিচ বলেন, ‘আপনি যখন এটি সেমি ফাইনাল ম্যাচ খেলবেন তখন ক্লান্তি আসাটা অসম্ভব। আপনি জানেন কতোটা ঝুকিতে আপনি। আমরা সেটি দেখিয়েছি। আর্জেন্টিনা ম্যাচ আলাদা করে রাখলে এটা আমাদের অন্যতম সেরা ম্যাচ।’
এখানেই থামেন না মড্রিচ। নিজেদের যোগ্যতাতেই যে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে তারা এবং সেটি যোগ্য দল হিসেবে, মনে করিয়ে দেন সেটিও। এই তারকা বলেন, ‘কেউ আমাদের এই বিশ্বকাপে এতোদূর আসার ক্ষেত্রে সুযোগ দেয় নি। আমাদের সামর্থ, ইচ্ছা, লড়াইয়ের মানসিকতা এই টুর্নামেন্টে দেখাতে পেরেছি এবং আমরা ফাইনালে এসেছি।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ