প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সুষ্ঠু নির্বাচনে লাভ আওয়ামী লীগের, না বিএনপির?

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী: রাজনীতি এখন সরকারের হাতে, খালি মাঠে গোল দেওয়ার চেষ্টা করলে অত্যন্ত ভুল হবে। দেশে এখন অন্যতম বড় কাজ হলো একটা সুষ্ঠু নির্বাচন। অধিকাংশ রাজনৈতিক দলই চায় নির্বাচন সুষ্ঠু করার স্বার্থে সেনাবাহিনী নিয়োগ করতে হবে। আর্মিকে ম্যাজিস্ট্রেসি পাওয়ার দেওয়ার দরকার নেই। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেটকে তাদের সঙ্গে যুক্ত করে দিতে পারি তাহলে সুষ্ঠু নির্বাচনের সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যাবে। সুশাসনের জন্য সুষ্ঠু নির্বাচন দরকার। এখন তো কথায় কথায় মামলা দেওয়া হয়, ধরে নিয়ে যায়, গুম করে দেওয়া হয়। এটা কোনোভাবেই ভালো লক্ষণ নয়। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে সম্মিলিতভাবে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনই দেশের মানুষের কাম্য।

নির্বাচনি সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রী যতবেশি উদার হবেন, ততবেশি লাভ হবে তার। তাকে বঙ্গবন্ধুর কাছ থেকে শেখা উচিত। বর্তমানে তিনি রাজনীতিতে বঙ্গবন্ধুকেও ছাড়িয়ে গেছেন। কিন্তু একটা বিষয়ে এখনো তার হীনমন্যতা রয়ে গেছে, যা বঙ্গবন্ধুর ছিল না। বঙ্গবন্ধু শাহ আজিজের বাসায় টাকা পাঠাতেন, ফজলুল কাদের চৌধুরীকে দেখতে গিয়েছিলেন সিলেটে। এসব হচ্ছে মহানুবতা ও উদারতা।

শেখ হাসিনা আমাদের প্রধানমন্ত্রী। তাকে সকল সংকীর্ণতার উর্ধ্বে উঠতে হবে। আমি মনে করি, তিনি যদি আবারও বিএনপিকে দাওয়াত দেন, রাজনৈতিক সংকট নিরসনে উদ্যোগী হোন তাহলে লাভটা তারই বেশি হবে।

আমার মনে হয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ভালো হবে। জাল ভোট অনেকাংশেই কমে যাবে। নির্বাচন কমিশনকে প্রত্যেক প্রার্থীর হলফনামা প্রকাশ করে দিতে হবে। তাদের ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন প্রকাশ করতে হবে। নির্বাচনে টাকার খেলা বন্ধ করার চেষ্টাও করতে হবে।

পরিচিতি : প্রতিষ্ঠাতা, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ