প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রামে ভুল চিকিৎসায় সাংবাদিকের শিশু কন্যার মৃত্যু

মো. শহিদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে একটি বেসরকারি হাসপাতালের ভুল চিকিৎসায় রাইফা খান (৩) নামে এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাতে নগরীর মেহেদীবাগ এলাকার বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে এ লোমহর্ষক ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সসহ ৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে গেলেও পরে কতিপয় চিকিৎসক নেতাদের বিভিন্ন হুমকি-ধমকিতে গভীর রাতে তাদেরকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

নিহত শিশু রাইফা খান দৈনিক সমকাল পত্রিকার চট্টগ্রাম অফিসের স্টাফ রিপোর্টার রুবেল খানের মেয়ে। এদিকে রাইফার মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন পুলিশ ও সাংবাদিকদের সমন্বয়ে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করে সিভিল সার্জন ডা. মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় একজন সাংবাদিক কন্যার মৃত্যু হয়ে বলে অভিযোগ উঠার পর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে ডাক্তার, পুলিশ ও সাংবাদিকদের রাখা হয়েছে।

কমিটি অভিযুক্ত চিকিৎসক ও নার্সদের গাফেলতির রির্পোট দিলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান। অন্যদিকে রাইফা খানের মৃত্যু ঘটনায় অভিযুক্ত চিকিৎসকদের শাস্তির দাবিতে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়।

সংবাদিক রুবেল খান জানান, তার শিশু কন্যা রাইফার ঠান্ডাজনিত কারণে গলা ব্যথা করায় খাওয়া বন্ধ করে দিলে বৃহস্পতিবার বিকালে ম্যাক্স হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। রাতে রাইফাকে অ্যান্টিবায়োটিক দেয়া হলে সে অস্বস্তি বোধ করে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা শিশু বিশেষজ্ঞকে কল দেয়ার পরামর্শ দেন।

এরপর শিশু বিশেষজ্ঞ বিধান বড়ুয়া এসে একই ধরনের ওষুধ দেন। রাতে ওই ওষুধ দেয়ার পর থেকে রাইফার খিঁচুনি শুরু হয়। দায়িত্বরত চিকিৎসককে জানালে তিনি ডা. বিধান বড়ুয়ার সঙ্গে কথা বলে ‘সেডিল’ ইনজেকশন পুশ করেন। এরপর রাইফা নিস্তেজ হয়ে যায়।

চকবাজার থানার ওসি আবুল কালাম বলেন, সাংবাদিক, বিএমএ ও পুলিশের ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের সভায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কমিটির রিপোর্টে ভিত্তিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে এ সিদ্ধান্তের পর ভোরে আটক তিনজনকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত