প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনা-গাজীপুরের জয়কে উন্নয়নের পক্ষে গণরায়ের প্রমাণ হিসেবে দেখছে আ.লীগ

হ্যাপী আক্তার : স্থানীয় সরকার নির্বাচনের প্রধান কৌশল হিসেবে দেশবাসীর কাছে সরকারের উন্নয়নচিত্র ব্যাপকভাবে তুলে ধরাকেই বিবেচনা করছে আওয়ামী লীগ। খুলনা-গাজীপুরের জয়কে উন্নয়নের পক্ষে গণরায়ের প্রমাণ হিসেবে দেখছে দলটি। নেতারা বলছেন, খুলনা-গাজীপুরের জয়ের মতোই বিএনপি নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করার যেকোন চেষ্টার জবাব আগামীতেও ভোটের মাধ্যমেই দেবে জনগণ।
খুলনার পর গাজীপুর, দুই সিটিতেই ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ বিএনপির। আর এজন্য তারা দায়ী করছে নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনকে। ভোট সুষ্ঠু ও অবাধ হলে বিএনপি প্রার্থীরা বড় জয় পেতেন বলেও দাবি দলটির।

তবে এসব বক্তব্যকে রাজনৈতিক মনে করছে সরকার ও নির্বাচন কমিশন। খুলনা-গাজীপুরের ভোট রংপুর-কুমিল্লার মতোই সুষ্ঠু হয়েছে দাবি করে বিএনপির কাছে অনিয়মের প্রমাণ তুলে ধরার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।
গাজীপুর সিটি নির্বাচনের ভরাডুবি আড়াল করতেই দলটির নেতারা একেক সময় একেক রকম অভিযোগ করছেন দাবি করে বিএনপিকে ভুল সংশোধনের পরামর্শ দিচ্ছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

আওয়ামী লীগ সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ফারুক খান বলেছেন, বিএনপি মিথ্যা কথা বলার স্টেডেজি আর নির্বাচন না করার স্টেডেজির কথা বলে লাভ হবে নাই। স্টেডেজির একটি পথই খোলা আছে, সেটা হচ্ছে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে অতীতের তাদের (বিএনপি) যে ভুল ভ্রান্তিগুলো সিকার করে আগামীতে আর কখনো ভুল হবে না, তাদের (বিএনপি) এই কথাগুলো বলা। তার সাথে জনগণের সাথে ক্ষমা চাওয়া।

খুলনা-গাজীপুরে পরাজয়ের পর নির্বাচনি কৌশলে পরিবর্তনের চিন্তা-ভাবনাকে একান্তভাবেই বিএনপির বিষয় উল্লেখ করে ক্ষমতাসীন দলের নেতারা বলছেন, আওয়ামী লীগের কৌশল উন্নয়ন দিয়ে জনগণের মন জয় করা।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বলেছেন, জনগণের কাছে যাব, ভোটারদের কাছ থেকে সমর্থন নেব। তারা যে সমর্থন দেবে সেভাবেই আমরা এগিয়ে যাব। আগামী তিনটি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আবার প্রতিয়মান হবে আমরা সঠিক।
বিদেশির কাছে নালিশ বা দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্নের চেষ্টায় লিপ্ত থেকে নির্বাচনে জয়ী হওয়া যাবে না বলেও মনে করেন আওয়ামী লীগ নেতারা। বিদেশিরা কাউকে ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে না উল্লেখ করে তারা বলছেন, ক্ষমতায় বসাতে পারে শুধু দেশের জনগণ।

সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেট টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত