প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

পরীক্ষা ছাড়াই ডাক্তার

ডেস্ক রিপোর্ট : বিদেশ থেকে ডিগ্রি নিয়ে আসা শিক্ষার্থীরা অবৈধভাবে ‘ক্লিনিক্যাল ট্রেনিং’ দিচ্ছে। দেশের বিভিন্ন প্রাইভেট মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজে আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে বছরের পর বছর ধরে এ সুযোগ দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, দেশের বিভিন্ন প্রাইভেট মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) রেজিস্ট্রেশন ও কোনো প্রকার সমঝোতা স্মারক চুক্তি ছাড়াই এ সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএমডিসির একাধিক কর্মকর্তা জানান, প্রধানত চীনের কথিত কয়েকটি মেডিকেল কলেজ থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা এ কাজ করছেন। অভিযোগ আছে, ওই সব মেডিকেল কলেজে টাকা দিয়ে ভর্তি হয়ে ক্লাস ও পরীক্ষা ছাড়াই নির্দিষ্ট সময় পর এমবিবিএস ও বিডিএস সার্টিফিকেট দেয়া হয়।

জানা গেছে, বিদেশি মেডিকেল বা ডেন্টাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করে দেশে ফিরে বিএমডিসি থেকে রেজিস্ট্রেশন নেয়ার সময় শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনীয় যে সব কাগজপত্র জমা দিচ্ছেন সেখানে ক্লিনিক্যাল ট্রেনিং গ্রহণের বিষয়টি গোপন রেখে সংশ্লিষ্ট কলেজেই পূর্ণকাল অধ্যয়ন করেছেন বলে মিথ্যা তথ্য সরবরাহ করছেন।

সম্প্রতি বিএমডিসি অভিযোগের সত্যতা পেয়ে দেশের সব বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ এবং ইনস্টিটিউট প্রধানকে চিঠি দিয়ে ক্লিনিক্যাল ট্রেনিংয়ের অনুমতি প্রদান না করার নির্দেশনা দিয়েছে। অন্যথায় সংশ্লিষ্ট কলেজের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিএমডিসির রেজিস্ট্রার ডা. জাহেদুল হক বসুনিয়া স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, দেশের সব মেডিকেল, ডেন্টাল কলেজ ও ইনস্টিটিউটে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের বিএমডিসি থেকে আবশ্যিকভাবে রেজিস্ট্রেশন গ্রহণ করতে হয়। রেজিস্ট্রেশন প্রাপ্তির পর নিজ নিজ কলেজে অধ্যয়ন করতে এবং সব ধরনের নির্ধারিত ক্লিনিক্যাল ক্লাসে অংশ নিতে পারেন।

নোটিশে বলা হয়, এমবিবিএস-বিডিএস কোর্সে বিদেশে অধ্যয়নরত কোনো কোনো শিক্ষার্থী দেশের মেডিকেল, ডেন্টাল কলেজ ও ইনস্টিটিউটে ক্লিনিক্যাল ট্রেনিং গ্রহণ করছে বলে বিভিন্ন সূত্র থেকে তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। বিদেশে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের দেশের মেডিকেল/ডেন্টাল কলেজ ও ইনস্টিটিউটে ট্রেনিং গ্রহণের অনুমতি দেয়া আইন পরিপন্থী। এ অবস্থায় বিদেশের মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজে অধ্যয়নরত কোনো বাংলাদেশি শিক্ষার্থী যদি ক্লিনিক্যাল ট্রেনিং গ্রহণ করে তা হলে ওই কলেজের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে বিএমডিসির রেজিস্ট্রার বলেন, দুই দেশের মেডিকেল কলেজের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হলে বিদেশে অধ্যয়নরত দেশি শিক্ষার্থীরা পাস শেষে ফিরে রেজিস্ট্রেশন নিয়ে দেশের মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজে প্রশিক্ষণ নিতে পারেন। কিন্তু সমঝোতা চুক্তি ছাড়া, রেজিস্ট্রেশন ছাড়া তা আইন পরিপন্থী।
তিনি বলেন, দেশের মেডিকেল কলেজে ক্লিনিক্যাল ট্রেনিং নিলেও যারা বিদেশে পাস করে ফিরে রেজিস্ট্রেশনের জন্য আবেদন করছেন তারা দেশে ট্রেনিং গ্রহণের বিষয়টি গোপন রেখে ওই সময়টা কলেজে অধ্যয়নরত ছিলেন বলে উল্লেখ করছেন। এ ব্যাপারে তারা কঠোর থেকে কঠোর হবেন। সূত্র : ইনকিলাব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত