প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোনালদো যেমন রিয়াল ছাড়তে চাইছেন, রিয়ালও তাকে ছাড়ার জন্য প্রস্তুত

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপের আগে পর্তুগালের বিভিন্ন পত্রিকা রোনালদোর দলবদল নিয়ে খবর দেয় রোনালদো যেমন রিয়াল ছাড়তে চাইছেন, রিয়ালও তাকে ছাড়ার জন্য প্রস্তুত।
তার এজেন্ট হোর্হে মেন্ডিজের সঙ্গে রিয়ালের সভাপতি ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ আলোচনায়ও বসেছিলেন খবর শোনা যায়। তবে আলোচনা তেমন ইতিবাচক হয়নি।

দুই পক্ষের মধ্য যত বাধা-বিপত্তি তা শুধু অর্থ নিয়ে। রিয়ালে রোনালদোর বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ২০২১ সাল পর্যন্ত এবং তার ‘রিলিজ ক্লোজ’ ১০০০ মিলিয়ন ইউরো। এই রিলিজ ক্লোজ নিয়েই মাথাব্যথা ছিল রিয়ালের।

এজন্য রোনালদোকে নির্ভরযোগ্য ক্রেতাও ‘খুঁজতে’ বলেছিল লস ব্লাঙ্কোসরা। শুক্রবারের খবর, রেনালদোর ‘রিলিজ ক্লোজ’ ১০০০ মিলিয়ন ইউরো থেকে ‘কমিয়ে ১২০ মিলিয়ন ইউরো’ করেছে।

রিলিজ ক্লোজ কমানোর খবর দিয়ে স্প্যানিশ দৈনিক ‘ওকে দারিও’ জানাচ্ছে, এর ফলে রোনালদোকে বিক্রি করতে রিয়ালের যেমন সহজ হবে, তেমনি রোনালদোরও ক্লাব ছাড়া সহজ হবে। এজেন্ট হোর্হে মেন্ডিজের তদবিরেই রোনালদোর রিলিজ ক্লোজ কমাতে রাজি হয়েছে। বলে দারিও।

পত্রিকাটির আরও দাবি, সিআর সেভেনকে কেনার জন্য ম্যানসিটি, আর্সেনাল, চেলসি ও এসি মিলান দৌড়ে আছে। আর এই প্রস্তাব চ্যাম্পিয়ন লিগ ফাইনালের আগেই পেয়েছেন পর্তুগিজ তারকা।

রিয়াল মাদ্রিদকে পরপর তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জেতানোর পরও রোনালদো ক্লাবে থাকার ব্যাপারে কোনও নিশ্চিত সিদ্ধান্ত জানাননি। তার রিয়াল ছাড়ার কারণ সম্পূর্ণ আর্থিক। কারণ বার্সেলোনায় লিওনেল মেসি যা পান বা পিএসজিতে নেইমার যা পান, রোনালদো সেটা পান না। প্রতিবছর বোনাস দেয়ার কথা ছিল রিয়াল কোনওবারই সেটা দেয়নি। রোনালদোর অভিযোগ, রিয়াল আর্থিক প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘন করেছে। এটাকে ‘প্রতারণা’ হিসাবেও দেখছেন সিআর সেভেন।
গত বছর রিয়াল ১২তম চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জেতার পর ‘মার্কা’ জানিয়েছিল, সম্ভাব্য নতুন চুক্তিতে রোনালদোর পারিশ্রমিক বাড়ানোর কথা দিয়েছেন পেরেজ। এটাও শোনা গিয়েছিল, পর্তুগিজ তারকার পারিশ্রমিক বাড়িয়ে বছরে ৩ কোটি ইউরো করার প্রস্তাব দিয়েছেন রিয়াল সভাপতি। কিন্তু গত সেপ্টেম্বরে রোনালদোর পারফরম্যান্স পড়তির দিকে নেমে গেলে তিনি ‘ইউ টার্ন’ করেন।

জানুয়ারিতে আবার ফর্ম ফিরে পেতে শুরু করলে রোনালদোর নতুন চুক্তি নিয়ে সরব হয় রিয়াল। তাতে বার্ষিক আড়াই কোটি ইউরো পারিশ্রমিক এবং অন্যান্য ভাতা মিলিয়ে অঙ্কটা ৩ কোটি টপকে যেত। কিন্তু প্রস্তাবটা পছন্দ হয়নি রোনালদোর। পরে চুক্তি বাড়ানোর বিষয়টি মৌসুমের শেষ পর্যন্ত তুলে রাখার অনুরোধ করেন। এই সময়ে রিয়াল আবার নেইমারকে কেনার চেষ্টা চালায়।

তখন এএস জানায় বৈঠকে রোনালদোকে সব মিলিয়ে বছরে ৩ কোটি ইউরো পারিশ্রমিকের চুক্তিপত্র দেয়ার প্রস্তাব করেছিল রিয়াল। কিন্তু তা কাজে আসেনি।

আর মার্কা জানায়, এই প্রস্তাব রোনালদোর পছন্দ হয়নি, যেটা তিনি আশা করেছিলেন। এরমধ্যে আবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কিয়েভের ফাইনাল জেতার পর মাদ্রিদ ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়ে ক্লাব কর্মকর্তাদের খেপিয়ে তুলেছেন রোনালদো।

মাঠের বাইরে তাকে নিয়ে যে আলোচনাই হোক না কেন, মাঠে নিজের মেজাজেই আছেন রোনালদো। বিশ্বকাপে গ্রুপপর্বের দুই ম্যাচে চার গোল করে ‘গোল্ডেন বুটের’ দৌঁড়ে আছেন তিনি। তার দলও কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে। নকআউটপর্বে শনিবার তাদের প্রতিপক্ষ উরুগুয়ে। চ্যানেলআই অনলাইন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত