প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

হলি আর্টিজান হামলায় চার্জশিট তৈরির নানা দিক

হ্যাপী আক্তার : ২০১৬ সালে ঘটে যাওয়া গুলশানের হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলা মামলার অভিযোগপত্র দেওয়া সম্ভব হয়নি এখনো। মামলাটির তদন্তকারী সংস্থা পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। সংস্থাটি বিভিন্ন সময় শিগগিরই দিচ্ছি, একমাসের মধ্যেই দিচ্ছি এমন কথা বলতে বলতে পার করেছে দুটি বছর। তবে এখন ডিএমপি কমিশনার সাত থেকে ১০ দিন বেধে দিয়েছেন।

গুলিশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে ২০১৬ সালের ১লা জুলাই রাতে হামলা চালিয়ে ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। যাদের মধ্যে ১৭ বিদেশি নাগরিক ছিলেন। জঙ্গিদের হামলায় পুলিশের দুই কর্মকর্তাও নিহত হন। ২রা জুলাই সকালে যৌথবাহিনীর অপারেশন থান্ডারবোল্টে নব্য জেএমবির পাঁচ জঙ্গি নিহত হন। উদ্ধার করা হয় ১৩ জন জিম্মি।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম জানান, তদন্ত একেবারেই শেষ পর্যায়ে, যেকোনো দিনই চার্জসিট তৈরি হয়ে যাবে।

সময় গড়িয়ে এখন প্রায় দুই বছর। দেয়া হয়নি অভিযোগপত্র। কাউন্টার টেররিজম ইউনিট বলছে এবার মামলার তদন্ত শেষ করে অভিযোগপত্র চূড়ান্ত করা হয়েছে। আসামিদের স্বীকারোক্তি ও সাক্ষীদের জবানবন্দী থেকে হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলায় ২১ জঙ্গির জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১৩ জন নিহত হয়েছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন অভিযানে।

অভিযোগ পত্র দিতে এত সময় কেন নিচ্ছেন তদন্তকারিরা, এ বিষয়ে ডিএমপি কমিশনার কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, এই অভিযান পরিচালনার জন্য অর্থের প্রয়োজন ছিলো। এই অর্থ কারা দিয়েছে তা চিহ্নিত করা, মামলা টি এত ব্যাপক যে এর সঙ্গে এত লোক জড়িত, তাদের চিহ্নিত করা, তাদের দায়দায়িত্ব নির্ধারণ করা এবং ফিজিকাল অ্যাভিডেন্স সংগ্রহ করা এটা অনেক জটিল প্রক্রিয়া ছিলো।

তবে এবার সময় বেধে দেওয়ায়, দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জঙ্গি হামলার মামলায় অভিযোগপত্রের জন্য অপেক্ষা আর ১০ দিনের। সূত্র : ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত