প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গাজীপুরে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে

হ্যাপী আক্তার : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনা ছাড়া সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে, বলছেন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা প্রভাব খাটানোর চেষ্টা না করলেও তাদের প্রার্থী জয় পেতো বলে মনে করছেন ড. বদিউল আলম মজুমদার।

প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের চেয়ে ২ লাখেরও বেশি ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছে আওয়ামী লীগের তরুণ নেতা জাহাঙ্গীর আলম। নবনির্বাচিত মেয়র নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি মতে গাজীপুরকে আধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে এবারের মেয়র মনযোগ দেবেন বলে আশা নগরবাসীর।

নগরবাসী বলছেন, নির্বাচনের আগে মেয়র যে সকল প্রত্রিশ্রুতি দিয়েছিলেন, ক্লিন ও গ্রীন সিটির তা বাস্তবায়নের আশা করছি।

নির্বাচনের সামগ্রিক পরিবেশ নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন পর্যবেক্ষকেরা। বড় দুই দলের প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ উপস্থিতি এবং বিএনপি প্রার্থীর শেষ পর্যন্ত ভোটে থাকাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন তারা।

জানিপপের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ বলেছেন, ৪২৫টি কেন্দ্রের মধ্যে মাত্র ৯টি কেন্দ্রে অনিয়ম ঘটায় নির্বাচন কমিশন ভোটগ্রহণ স্থগিত করে দিয়েছিলেন। যদি মাপকাঠিতে রাখা হয় সুষ্ঠু ভোটের জন্য তাহলে সেখানে ১’শর মধে ৮০ দেবে।

সুশাসনের জন্য নাগরিক- সুজনের গাজীপুর শাখার সভাপতি বলছেন সার্বিক বিবেচনায় নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। তবে ভিন্নমত রয়েছে সুজনের কেন্দ্রীয় সম্পাদকের।

গাজীপুর সুশাসনের জন্য নাগরিকের সভাপতি অধ্যাপক মুকুল কুমার মল্লিক বলেছেন, গাজীপুরে সুষ্ঠুভাবেই নির্বাচন হয়েছে। যদিও কয়েকটি ভোট কেন্দ্রে গোলযোগ হয়েছে , তবে সেটা ধরার বিষয় না।

সুশাসনের জন্য নাগরিকের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনটি অহেতুকভাবে বির্তকিত হয়েছে। এই নির্বাচনটিকে খুলনার নির্বাচন থেকে ভালো বলা আমার পক্ষে ভালো বলা সম্ভব নয়। তবে কারচুপি ও কোনো রকম বারাবাড়ি ছাড়াই গাজীপুর সিটি নির্বাচনে জয়ী হতে পারতো সরকার দলীয় প্রার্থী।

সামনের তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ইসিকে আরো সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন পর্যবেক্ষকেরা। সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেট টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত