প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

‘নেইমারকে পেলে একসঙ্গে ছবি তুলব’

বিনোদন ডেস্ক : বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের মানুষও ফুটবল খেলা নিয়ে মেতে আছেন। বিশ্বজোড়া জনপ্রিয় এ খেলার উত্তেজনা থেকে বাদ পড়েননি বাংলাদেশের তারকারাও। পছন্দের দলের পক্ষ নিয়ে কথা বাহাস। প্রতিপক্ষ দলের সাপোর্টারদের সঙ্গে রসিকতা করা ছাড়াও বিভিন্ন মজার কাণ্ডে অংশ নিতে ভালোবাসেন তারাও।

২৮ জুন রাতে সার্বিয়া বনাম ব্রাজিলের খেলা ছিল। ২-০ গোলের জয়ে ‘ই’ গ্রুপের সেরা দল হিসেবে শেষ ষোলোয় পা রাখল পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। এ নিয়ে এখন বিশ্বকাপের আমেজে আরও একধাপ এগিয়ে গেলেন ব্রাজিল সমর্থকরা।

ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপ নিয়ে  সঙ্গে আলাপ হয় টেলিভিশন নাটকের প্রিয় মুখ মডেল ও অভিনেত্রী মোজেজা আশরাফ মোনালিসার সঙ্গে। এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছেন তিনি। বর্তমানে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মেতেছেন বিশ্বকাপ ফুটবলের আমেজে। সঙ্গে আলাপকালে তিনি জানিয়েছেন তার ফুটবল প্রীতি সম্পর্কে।
প্রশ্ন : ফুটবল খেলায় কোন দলকে বেশি ভালো লাগে?

মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: (হাসতে হাসতে) আসলে আমরা ব্রাজিল সাপোর্টার। ব্রাজিলকে নিয়েই আমরা আছি।
প্রশ্ন : ব্রাজিলের খেলা কেন ভালো লাগে?

মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: ব্রাজিলতো সব সময়েই ভালো খেলে আসছে। টিম হিসেবে ব্রাজিল খুবই ভালো। ছোটবেলা থেকে দেখতাম আম্মা-বোন, বাসার সবাই ব্রাজিল সাপোর্ট করত। তখন রোনালদো ছিলেন ব্রাজিলের নামকরা খেলোয়াড়। যদিও তখন বয়স কম থাকায় খেলা তেমন একটা বুঝতাম না। এরপর বড় হওয়ার পর আমার কাছে মনে হয়েছে ব্রাজিলের খেলার ঢংটা বেশ সুন্দর। তখন থেকে ওদের খেলা আমার আরও ভালো লাগতে শুরু করে। রোনালদোর খেলা তখন বেশ মনে ধরে যায়। এরপর নেইমারের খেলার প্রতিও আমার ভালো লাগা শুরু হয়।
প্রিয় দল নিয়ে তর্কেও জড়ান মোনালিসা।
প্রশ্ন : যদি কখনো নেইমারের সঙ্গে দেখা হয়, তখন কী করবেন?

মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: আমার কাছে আমার ভক্তরা যেভাবে আবদার করে আমিও নেইমারের দেখা পেলে একই রকমের আবদারই করব। নেইমারের সঙ্গে একটা ছবি তুলতে চাইব আর একটা অটোগ্রাফ নেব।
প্রশ্ন : যদি জানতে চাই মেসি ও নেইমার এই দুই খেলোয়াড়ের খেলা আপনার কাছে কেমন লাগে?

মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: মেসি-নেইমার দুজনকেই বেশ ভালো লাগে। হ্যাঁ, মেসির খেলার প্রতিও আমার টান আছে। মেসির খেলার একটা অন্যারকম ধরন আছে। তিনি বেশ ঠান্ডা স্বভাবের। আমার কাছে মনে হয় মেসি খেলার সময় বেশ ঠান্ডা মেজাজেই খেলতে নামেন। এদিক থেকে নেইমার আবার উল্টো স্বভাবের। নেইমার বেশ চঞ্চল। খেলার সময় নেইমার বেশ উত্তেজিত থাকেন। খেলার সময় আশপাশে কাউকে খুব একটা পাত্তা দিতে দেখা যায় না তাকে। গোল করার করার সময়ও নেইমার খুব উত্তেজিত থাকে। তার এই স্বভাব আমার খুবই পছন্দ।
প্রশ্ন : কখনো ফুটবল খেলার সুযোগ হয়েছিল কি?

মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: সুযোগ পেলে অবশ্যই খেলতাম। কিন্তু না, ছোটবেলা ও বড় বেলা, কোনো বেলাতেই ফুটবল খেলার সুযোগ হয়ে ওঠেনি।

প্রশ্ন :ফুটবল খেলা নিয়ে মজার তর্ক করা বা খুনসুটি করার অভ্যাস আছে কি?
মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: আমাদের বাসার সবাই ব্রাজিল সাপোর্ট করার কারণে বাসায় এ নিয়ে কারো সঙ্গে তেমন কোনো তর্ক লাগার সুযোগ নাই। তবে বন্ধুদের সঙ্গে ঠিকই ফুটবল খেলা নিয়ে কথা কাটা-কাটি , ঝগড়া করা এসব হয়েই থাকে। বিপক্ষ দল আর্জেন্টিনার খেলা চলাকালীন অনবরত ফেসবুকে বিভিন্ন ট্যাগ করা, মেনশন করা এসব কাজে সক্রিয় থাকতে ভালো লাগে। আর সুযোগ পেলে আর্জেন্টিনার সমর্থকদের খোঁচা দিতে ভালো লাগে। গতকাল যখন ব্রাজিলের খেলা হচ্ছিল তখনো আমি বেশ উত্তেজিত ছিলাম।
প্রশ্ন : এবারের ফুটবল খেলা কেমন উপভোগ করছেন?
মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: কয়দিন পরেই তো চলে যাচ্ছি যুক্তরাষ্ট্রে। এখন পরিবারের সবার সঙ্গে খেলা দেখার মজাগুলো উপভোগ করতে পারছি এটাই এখন আমার কাছে বড় পাওয়া।
ব্রাজিলের জয়ে বেজায় খুশি মোনালিসা। সূত্র :  প্রিয়.কম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত