প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

সম্পদের কেন্দ্রীয়করণই পৃথিবীকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাবে : ড. ইউনুস (ভিডিও)

স্বপ্না চক্রবর্তী : নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনুস বলেছেন, সম্পদের সমানভাবে বণ্টন না করে এটির কেন্দ্রীয়করণের মাধ্যমে একসময় পৃথিবী ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাবে। এখনই সম্পদের সুষম বণ্টন অত্যন্ত জরুরি। যা সম্ভব হবে সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমে। তিনি বলেন, এই জন্য প্রথমেই আমাদের চাকরিকে বিদায় দিতে হবে। সামাজিক ব্যবসার উদ্যোগে এগিয়ে আসতে হবে।

বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশিত এক লাইভে তিনি বলেন, সম্পদের কেন্দ্রীয়করণ হচ্ছে। সব সম্পদই একজন, দুইজন বা পাঁচজনের হাতে চলে যাচ্ছে। যা আবার ক্রমানুসারে ৫ জন থেকে আবার ৪ জনে আসছে, ৪ জন থেকে ৩ জনে আসছে। এতে করে সম্পদের সবটাই একজন বা দুইজন লোকের হাতে চলে যাচ্ছে। এটি সাংঘাতিক রকমের ভয়াবহ একটি বিষয় হিসেবে উল্লেখ করে এই অর্থনীতিবিদ বলেন, বিষয়টি এত ভয়াবহ যে এটিও একটি কারণ হতে পারে আমাদের পৃথিবীর বুক থেকে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার। কারণ এতে করে মানুষের মধ্যে এত অসন্তোষ তৈরি হবে, মানুষে মানুষে এত বিভেদ তৈরি হবে যে, ঝগড়াঝাটি মারপিট এমনকি যুদ্ধ করে নিজেরাই শেষ হয়ে যাবো।

তিনি বলেন, প্রকৃতি, মনুষ্যসৃষ্ট যুদ্ধ এবং সম্পদের এই কেন্দ্রীয়করণ এই তিনটি কারণেই আমি মনে করি এই পৃথিবী থেকে এই শতাব্দীর মধ্যেই আমরা নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবো বলেও আমি মনে করি। তিনি বলেন, যদি এখনই এখনই এর প্রতিকার না করা হয় তাহলে ধ্বংস অনিবার্য।

তবে প্রবৃদ্ধিও জরুরি হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রবৃদ্ধির হার নিয়ে আমরা যখন কথা বলি তখন খুব উৎফুল্ল হই এই ভেবে যে আমাদের প্রবৃদ্ধির হার অনেক বেড়েছে। এটা উৎফুল্ল হওয়ারই কারণই কিন্তু এটাও মনে রাখতে হবে প্রবৃদ্ধি যতই বাড়ছে সম্পদের কেন্দ্রীভূতকরণ হয়ে যাচ্ছে। প্রবৃদ্ধিটা ওই কারণেই হয় যে কিছু লোকের হাতে অনেক টাকা চলে যাচ্ছে আবার কিছু লোক দরিদ্রই থেকে যাচ্ছে। আমার-আপনার টাকা বাড়ছে বলে প্রবৃদ্ধি হচ্ছে যে তা না ওই কতিপয় লোকের হাতে সম্পদ চলে গিয়ে ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। কাজেই আমি মনে করি প্রবৃদ্ধি যদি সমানহারে ভাগ হতো তাহলে ভয়ের কোনো কারণ ছিলো না। কিন্তু এখন এমন প্রবৃদ্ধি হয়েছে যার ফলে প্রবৃদ্ধি যত বাড়বে সম্পদের কেন্দ্রীয়করণও বাড়বে। আমি বলছি না প্রবৃদ্ধি বন্ধ করে দিতে হবে আমি বলছি প্রবৃদ্ধির ফলাফলটা উল্টিয়ে দিতে হবে। সম্পদের কেন্দ্রীয়করণ না করে এটাকে সবার মধ্যে সমানভাবে বন্টনের মাধমেই সুফল অর্থনীতি সম্পন্ন হবে বলে আমি মনে করি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত