প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

সুর নরম করলেও এখনও চীনা বিনিয়োগকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে রেখেছে হোয়াইট

আসিফুজ্জামান পৃথিল : জনসম্মুখে সুর নরম করওলও এখন মার্কিন প্রযুক্তি কোম্পানিতে চীনা বিনিয়োগের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে যেতে পারে ট্রাম্প প্রশাসন। বিষয়টি এখন মার্কিন কংগ্রেসের উপরে অনেকাংশে নির্ভর করছে।

প্রযুক্তিখাতে যেকোন লেনদেনের অনুমোদন এবং পযালোলচনার জন্য সরকার ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর ব্যাপারে অনুমোদন দিতে পারে কংগ্রেস। কারণ সংবেদনশীল প্রযুক্তি রপ্তানির সাথে দেশটির জাতীয় নিরাপত্তার বিষয় জড়িত রয়েছে। বুধবার, গত মাসে ঘোষিত চীনা বিনিয়োগ ঠেকানোর ঘোষণা থেকে সরে আসে হোয়াইট হাউজ। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিফেন মিউনিখ সাংবাদিকদের জানান, ‘আমরা চীনের সাথে তেমন আচরণই করবে, যেমন আচরণ অন্যদের সাথে করা হবে। আমাদের যেই লেনদেনের প্রতি সন্দেহ হবে তা আমরা বন্ধ করে দেবো। এর মানে এই নয় আমরা তা পাইকারি হারে করবো। চীনের সাথে অসমতার কোন ইচ্ছা আমাদের নেই।’

তবে আমেরিকান এন্টারপ্রাইজ ইন্সটিটিউট এর আবাসিক শিক্ষাবিদ ডেরেক সিসরস এর মতে জনসম্মুখে বেইজিংকে সহায়তা করলেও প্রশাসন মার্কিন প্রযুক্তি কোম্পানিতে চীনা বিনিয়োগ বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ বন্ধ করবেনা। তিনি বলেন, ‘চীনকে পরিষ্কার বার্তা তেয়া হয়েছে। এরকম দেশ আরো রয়েছে যারা আমাদের প্রযুক্তি কিনুক তা আমরা চাইনা। কিন্তু তাদের অর্থ নেই। আমাদের উত্তর কোরিয়াকে ঠেকানোর প্রয়োজন নেই। কারণ তারা চালের বিনিময়ে মার্কিন প্রযুক্তি কিনতে পারবেনা।’ তবে ব্যাবস্থা নেবার পূর্বে সরকার কংগ্রেসের দিকে তাকিয়ে আছে। নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে কংগ্রেস বিদেশী বিনিয়োগ বন্ধ করে দিলে সরকারকে আলাদাভাবে কিছু করতে হবেনা। -সিএনবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত